ঢাকা ০২:২৬ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ২২ মে ২০২৪
সংবাদ শিরোনাম ::
বন্দরে দুই ট্রাকের মুখোমুখি সংঘর্ষে নিহত-১ আহত-৩ বন্দরে অসুস্থ্য জাপা নেতা ফজর আলী পাশে দাঁড়ালেন উপজেলা জাতীয় পার্টি নেতৃবৃন্দ বাবুর্চি ও দালাল চক্রের দখলে বন্দর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স বন্দরে দিনমজুরকে কুপিয়ে জখম করার ঘটনায় আওয়ামীলীগ নেতা আফজালসহ ৮ জনের বিরুদ্ধে মামলা রাইসিকে বহনকারী হেলিকপ্টার বিধ্বস্তের ঘটনায় কেউ বেঁচে নেই আড়াইহাজার উপজেলা নির্বাচনে হুইপ নজরুলের বিরুদ্ধে সংবাদ সম্মেলন গলাচিপা উপজেলা নির্বাচন সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ করতে ১৫ জন ম্যাজিস্ট্রেট মোতায়েন করা হবে ধামগড় পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ এর সখ্যতায় মদনপুরে অবৈধ ফুটপাত বাণিজ্য গলাচিপা উপজেলা নির্বাচন সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ করতে ১৫ জন ম্যাজিস্ট কলাপাড়ায় ব্যতিক্রমী আয়োজনে সহকারী প্রধান শিক্ষকের বিদায় সংবর্ধনা

বন্দরে আওয়ামীলীগ নেতা গোলজারে অত্যাচারে এলাকাবাসী অতিষ্ঠ

নিজস্ব প্রতিনিধি
  • আপডেট সময় : ০৪:৩০:৫৫ অপরাহ্ন, সোমবার, ৮ এপ্রিল ২০২৪ ৫১ বার পড়া হয়েছে

আওয়ামীলীগ নেতা গোলজারে অত্যাচার

বন্দরে আওয়ামীলীগ নেতা গোলজারে অত্যাচারে এলাকাবাসী অতিষ্ঠ

বন্দর উপজেলা ধামগড় ইউনিয়নের শ্রীরামপুর এলাকার মৃত ছৈয়াদ আলীর ছেলে কতিথ আওয়ামীলীগ নেতা গোলজারের অত্যাচারে এলাকাবাসী অতিষ্ঠ। অভিযোগ সূত্রে জানা যায় যে ধামগড় ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান মাসুম আহম্মদের সাথে চলাফেরা করেই বনে যান আওয়ামীলীগ নেতা।

এখন তার দাপটে এলাকায় সাধারণ মানুষের অবস্থা নাজেহাল। দেন দরবার বিচার শালিসিই তার মূল ব্যবসা এভাবেই সাধারন মানুষকে হেনন্থ করে থাকেন।

বন্দরে আওয়ামীলীগ নেতা গোলজারে অত্যাচারে এলাকাবাসী অতিষ্ঠ

অভিযোগে আরো উল্লেখ করেন যে আওমীলীগ নেতা গোলজার তার ভাতিজাদের নিয়ে সাঙ্গ পাঙ্গ তৈরি করে এলাকায় গড়ে তুলেছে ত্রাসের রাজত্ব। গোলজারের আপন বড় ভাই হাজী আসাদ উল্লাহ বলেন আমার বাবার পৈত্রিক সম্পত্তি যার দাগ নং সি এস-১২৪, এস এ- ১০, আর এস -০৯। নামজারী ৯০১২ যাহার সাবেক জৌত নং ৯০১১ থাকা সত্ত্বেও আমার বাড়ি থেকে নামার রাস্তাটি ক্ষমতার প্রভাব খাটিয়ে দেয়াল নির্মাণ করে চলাচল বন্ধ করে দেয়। আমার ছোট ভাই গোলজার, আমানউল্লাহ, আরিফ, শরিফ সহ তাদের সাঙ্গ পাঙ্গ আমাকে অকাথ্য ভাষায় গালাগালি করে প্রাণ নাশের হুমকি প্রদান করেন।

বন্দরে আওয়ামীলীগ নেতা গোলজারে অত্যাচারে এলাকাবাসী অতিষ্ঠ

নাম বলতে অনিচ্ছুক আরেক ভুক্তভোগী জানান গোলজারের বিরুদ্ধে কেউ মুখ খুললেই তাকে বিভিন্ন ভাবে হেনস্থা করে।

এবিষয়ে ধামগড় ইউপি চেয়ারম্যান কামাল হোসেনের কাছে একাধিকবার বিচার শালিসি বসলেও ঘ্যারতেরা গোলজারের ঘাড় সোজা হয়নি। হাজী আসাদ উল্লাহকে অকাথ্য ভাষায় গালাগালি ও প্রান নাশের হুমকি প্রদান করায় বন্দর থানায় একটি লিখিত অভিযোগ করা হয়েছে ও পৈত্রিক সম্পত্তি উদ্ধারে নারায়ণগঞ্জ কোর্টে একটি মামলা দায়ের করেন যাহার নং ৯৫৯৪।

এবিষয়ে স্থানীয় প্রশাসনের আইনানুগ সহযোগীতা চান এলাকাবাসী।

দুমকিতে কালবৈশাখী ঝড়ের তাণ্ডবে গাছপালা ও ঘরবাড়ির ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি

নিউজটি শেয়ার করুন

One thought on “বন্দরে আওয়ামীলীগ নেতা গোলজারে অত্যাচারে এলাকাবাসী অতিষ্ঠ

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

ট্যাগস :

বন্দরে আওয়ামীলীগ নেতা গোলজারে অত্যাচারে এলাকাবাসী অতিষ্ঠ

আপডেট সময় : ০৪:৩০:৫৫ অপরাহ্ন, সোমবার, ৮ এপ্রিল ২০২৪

বন্দরে আওয়ামীলীগ নেতা গোলজারে অত্যাচারে এলাকাবাসী অতিষ্ঠ

বন্দর উপজেলা ধামগড় ইউনিয়নের শ্রীরামপুর এলাকার মৃত ছৈয়াদ আলীর ছেলে কতিথ আওয়ামীলীগ নেতা গোলজারের অত্যাচারে এলাকাবাসী অতিষ্ঠ। অভিযোগ সূত্রে জানা যায় যে ধামগড় ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান মাসুম আহম্মদের সাথে চলাফেরা করেই বনে যান আওয়ামীলীগ নেতা।

এখন তার দাপটে এলাকায় সাধারণ মানুষের অবস্থা নাজেহাল। দেন দরবার বিচার শালিসিই তার মূল ব্যবসা এভাবেই সাধারন মানুষকে হেনন্থ করে থাকেন।

বন্দরে আওয়ামীলীগ নেতা গোলজারে অত্যাচারে এলাকাবাসী অতিষ্ঠ

অভিযোগে আরো উল্লেখ করেন যে আওমীলীগ নেতা গোলজার তার ভাতিজাদের নিয়ে সাঙ্গ পাঙ্গ তৈরি করে এলাকায় গড়ে তুলেছে ত্রাসের রাজত্ব। গোলজারের আপন বড় ভাই হাজী আসাদ উল্লাহ বলেন আমার বাবার পৈত্রিক সম্পত্তি যার দাগ নং সি এস-১২৪, এস এ- ১০, আর এস -০৯। নামজারী ৯০১২ যাহার সাবেক জৌত নং ৯০১১ থাকা সত্ত্বেও আমার বাড়ি থেকে নামার রাস্তাটি ক্ষমতার প্রভাব খাটিয়ে দেয়াল নির্মাণ করে চলাচল বন্ধ করে দেয়। আমার ছোট ভাই গোলজার, আমানউল্লাহ, আরিফ, শরিফ সহ তাদের সাঙ্গ পাঙ্গ আমাকে অকাথ্য ভাষায় গালাগালি করে প্রাণ নাশের হুমকি প্রদান করেন।

বন্দরে আওয়ামীলীগ নেতা গোলজারে অত্যাচারে এলাকাবাসী অতিষ্ঠ

নাম বলতে অনিচ্ছুক আরেক ভুক্তভোগী জানান গোলজারের বিরুদ্ধে কেউ মুখ খুললেই তাকে বিভিন্ন ভাবে হেনস্থা করে।

এবিষয়ে ধামগড় ইউপি চেয়ারম্যান কামাল হোসেনের কাছে একাধিকবার বিচার শালিসি বসলেও ঘ্যারতেরা গোলজারের ঘাড় সোজা হয়নি। হাজী আসাদ উল্লাহকে অকাথ্য ভাষায় গালাগালি ও প্রান নাশের হুমকি প্রদান করায় বন্দর থানায় একটি লিখিত অভিযোগ করা হয়েছে ও পৈত্রিক সম্পত্তি উদ্ধারে নারায়ণগঞ্জ কোর্টে একটি মামলা দায়ের করেন যাহার নং ৯৫৯৪।

এবিষয়ে স্থানীয় প্রশাসনের আইনানুগ সহযোগীতা চান এলাকাবাসী।

দুমকিতে কালবৈশাখী ঝড়ের তাণ্ডবে গাছপালা ও ঘরবাড়ির ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি