কথা নয় কাজে প্রমান করেছেন গরীব ও অসহায়ের বিপদের বন্ধু আখক্তারুজ্জামান বাচ্চু

মোঃনুরুজ্জামান (ঝালকাঠি জেলা) প্রতিনিধিঃ নিজের ছায়াঁকে ঢাকবার মত শক্তি মানুষের নেই। অথচ নিজ কর্মের মধ্যেই মানুষের হৃদয়ে ছায়া তৈরি করবার মত শক্তি, কিছু ব্যক্তির মধ্যে থেকেই থাকে। তেমনি একজন অসাধারণ ব্যাক্তিত্ব, নলছিটি উপজেলার কৃতি সন্তান কুলকাঠি ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মোঃ আখক্তারুজ্জামান স্যার।

যিনি মানুষের হৃদয়ের মনিকোঠায়, শ্রদ্ধা এবং ভালোবাসার মাধ্যমে জায়গা করে নিতে সক্ষম হয়েছেন। স্বপ্ন পৃথিবীর প্রতিটি মানুষেরই থাকে। কিন্তু স্বপ্নের পথে পা বাড়ালেই আসতে থাকে, নানা প্রতিবন্ধকতা। যিনি প্রতিবন্ধকতা পার করে সামনে এগিয়ে যাবেন, জনগণের কল্যানে কাজ করে।তিনিই সমাজে সফল ব্যাক্তি ও দুঃসময়ের বন্ধু হিসেবে স্বীকৃতি লাভ করবেন। সাফল্য মন্ডিত তেমনি একজনকে নিয়ে কিছু কথা তুলে ধরতে চাই। যে মানুষটি কখনো অভিভাবক, কখনো সমাজ সেবক, কখনো অসহায়দের বন্ধু হিসেবে দিনরাত অক্লান্ত পরিশ্রম করে যাচ্ছেন।

বঙ্গবন্ধুর নেতৃত্বে স্বাধীন হওয়ার পর, আওয়ামীলীগের হাত ধরে এগিয়ে যাচ্ছে বাংলাদেশ। রাষ্ট্রনায়ক শেখ হাসিনার সঠিক নেতৃত্বে ও দেশের মানুষের সার্বিক সহযোগিতায়, উন্নয়নের পথেই হাঁটছে এদেশের জনগণ। পিছিয়ে নেই সমাজের অবহেলিত মানুষের চিত্র। যার পিছনে গুরুত্বপূর্ণ ভুমিকা রয়েছে দেশপ্রেমিক মানুষের।বিশিষ্ট সমাজসেবক এবং ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মোঃ আখক্তারুজ্জামান স্যার তাদের মধ্যেই অন্যতম একজন দেশপ্রেমিক মানুষ। দেশের প্রতি রয়েছে তার শ্রদ্ধা ও ভালোবাসা। তার নেতৃত্বে নলছিটি উপজেলা সহ বিভিন্ন অঞ্চলের অবহেলিত মানুষের ভাগ্য চিত্র, বদলানোর কাজ প্রতিনিয়ত এগিয়ে যাচ্ছে।
স্বাধীনতার স্বপক্ষের মানুষ হিসেবে নিজেকে গড়ে তুলতে সহযোগিতা করেছে চেয়ারম্যান মোঃ আখক্তারুজ্জামান বাচ্চু। মানুষ বেঁচে থাকে তার কর্মের মধ্য দিয়ে এই কথার উপরে ভিত্তি করে সৎ ন্যায় নিষ্ঠাবান জনদরদি পিতা মাতার আদর্শ মেনে, সততার সাথে তাদের পথেই হাটছেন এই গর্বিত সন্তান।

সে ধারাবাহিকতায় তিনি অসংখ্য মসজিদ, মাদ্রাসা, স্কুল-কলেজ ও বিভিন্ন সামাজিক, সাংস্কৃতিক সংগঠন এবং প্রতিষ্ঠানের পৃষ্ঠপোষক হিসেবে নিজের সহযোগিতার হাত সব সময় বাড়িয়ে দিয়েছেন। ব্যাক্তি জীবনে অত্যন্ত নম্র, ভদ্র, সদাহাস্যোজ্জ্বল ও সাদা মনের মানুষ হিসেবেই পরিচিত। একজন মানবিক সমাজ সেবক হিসেবে সামাজিক উন্নয়নে এবং করোনাকালীন সময়ে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রেখে সাধারণ মানুষের আস্থা অর্জনে সক্ষম হয়েছেন। যার কারনে নলছিটি উপজেলা সহ বিভিন্ন অঞ্চলের হতদরিদ্র মানুষের জন্য তাঁর নিরন্তর মানবিকতা প্রশংসনীয়। গরীব অসহায় মানুষের পাশে থাকা, চিকিৎসা সেবা, শিক্ষা, সাংস্কৃতিক, সামাজিক ভাবে বিশেষ অবদান রেখে দায়িত্বশীলতার পরিচয় দিয়েছেন দুঃসময়ের বিপদের বন্ধু হিসেবে পরিচিত মোঃআখক্তারুজ্জামান বাচ্চু স্যার। নিজের সাফল্যের কারণে বিভিন্ন মহল ও সংগঠন কর্তৃক নানা ভাবে প্রশংসিত এবং অসংখ্য সম্মাননা পুরস্কারের মাধ্যমে সংবর্ধিত হয়েছেন। যা সমাজের কল্যাণময় কাজের অনুপ্রেরণার উৎস। ছোটবেলা থেকে বঙ্গবন্ধুর আদর্শকে ধারন করে তার মনে স্বপ্ন জেগেছিলো, অসহায় গরীব দুঃখী মানুষের মুখে হাসি ফুটাবে বলে। দিন দিন বড় হয়েছেন, মনের মধ্যে জেগে থাকা স্বপ্ন বাস্তবায়নের পথেই এগিয়েছেন তিনি। বঙ্গবন্ধুকে হৃদয়ে ধারন করে, সৎ ন্যায় নিষ্ঠাবান দেশপ্রেমিক পিতা মাতার আদর্শ মেনে তিনি ন্যায় ও নীতির মাধ্যমে নিজের জীবন নামের রেলগাড়ী তুলে দিয়েছেন সততার রেললাইনে।

স্থানীয় জনসাধারণের সঙ্গে কথা বললে তারা জানান যে, মোঃ আক্তারুজ্জামান বাচ্চু অনেক বড় মাপের একজন দেশপ্রেমিক মানুষ তিনি নলছিটি উপজেলার কুলকাঠি ইউনিয়ন বাসীর কাছে একজন সাদা মনের উদার মানসিকতার দানশীল মানুষ হিসেবে পরিচিতি। তার অনেক অবদান রয়েছে এই অঞ্চলের আর্থসামাজিক উন্নয়নে। এসময় তারা আরও জানান, তিনি একজন পরিশ্রমী ভাল মানুষও বটে। চিকিৎসার পাশাপাশি ধর্মীয়, শিক্ষা, সামাজিক উন্নয়নে তিনি সব সময় পাশে দাঁড়িয়েছেন। কথা নয় কাজেই প্রমান করেছেন তিনি গরীবের বন্ধু, পাশে থেকেছেন যে কোন প্রয়োজনে। সে জন্য তার পাশে আমরা সব সময় আছি এবং থাকবো ইনশাআল্লাহ। কারন আমাদের দুঃখ দুর্দশায় যে কোন প্রয়োজনে মোঃ আখক্তারুজ্জামান বাচ্চু চেয়ারম্যান কে সহজেই পাশে পাওয়া যায়। তার মত মানুষের সমাজে আজ বড়ই অভাব। সমাজে এখনো অনেক ভালো মানুষ আছেন, তিনি তারই জলন্ত প্রমান। যাদের জন্য এগিয়ে যাচ্ছে সমাজ, এগিয়ে যাচ্ছে বাংলাদেশ।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *