কোম্পানীগঞ্জের ৮ ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে নির্বাচিত হয়েছেন যাঁরা

 

মোঃ মাসুদ রানা – নোয়াখালী প্রতিনিধিসপ্তম ধাপে অনুষ্ঠিত কোম্পানীগঞ্জের ইউপি নির্বাচনের আটটি ইউনিয়ন নির্বাচনের ভোটগ্রহণ সম্পন্ন হয়েছে।

নির্বাচনে সিরাজপুর ইউনিয়নে অটোরিকশা প্রতীকের নাজিম উদ্দিন মিকন ৬০৫২ ভোট পেয়ে বিজয়ী হন, তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী চশমা প্রতীকের মোঃ আবুল হাসেম ৫৪৪৮ পান।
চরহাজারী ইউনিয়নে আনারস প্রতীকের মহি উদ্দিন সোহাগ ৬৪৪৩ ভোট পেয়ে বিজয়ী হন, তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী চশমা প্রতীকের মাওলানা শাহজাহান ৪৪০০ ভোট পেয়ে দ্বিতীয় হন।
চরপার্বতী ইউনিয়নে মোটরসাইকেল প্রতীকের কাজী মোহাম্মদ হানিফ ৫৪২০ ভোট পেয়ে বিজয়ী হন, তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী টেলিফোন প্রতীকের মোজাম্মেল হোসেন কামরুল পেয়েছেন ৪২১৬ ভোট।
চরকাঁকড়া ইউনিয়নে চশমা প্রতীকের মোঃ হানিফ সবুজ ৫৩৩১ ভোট পেয়ে বিজয়ী হন, তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী অটোরিকশা প্রতীকের সফি উল্যাহ ৪০২৫ ভোট পান।
চরফকিরা ইউনিয়নে আনারস প্রতীকের জায়দল হক কচি ৭২১১ ভোট পেয়ে বিজয়ী হন, তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী মোটরসাইকেল প্রতীকের জামাল উদ্দিন লিটন পেয়েছেন ৩০৮০ ভোট।
রামপুর ইউনিয়নে সিরাজিস সালেকিন রিমন ৫৬৯৬ ভোট পেয়ে বিজয়ী হন, তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী মোটরসাইকেল প্রতীকের ইকবাল বাহার চৌধুরী ৪৯৪৮ ভোট পান।
মুছাপুর ইউনিয়নে আইয়ুব আলী ৬৯২৭ ভোট পেয়ে বিজয়ী হন, তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী মোটরসাইকেল প্রতীকর নজরুল ইসলাম চৌধুরী ৬০৮৫ ভোট পেয়েছেন।
চরএলাহী ইউনয়নে আনারস প্রতীকের আব্দুর রাজ্জাক ৬১২২ ভোট পেয়ে বিজয়ী হন, তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী চশমা প্রতীকের আব্দুল মালেক ৫০৬২ ভোট পান।

সোমবার(৭ ফেব্রুয়ারি) রাতে সংশ্লিষ্ট রিটার্নিং অফিসারগণের কার্যালয় থেকে ঘোষিত প্রাথমিক বেসরকারি ফলাফলে এসব তথ্য জানা যায়।

উল্লেখ্য, কোনপ্রকার সহিংসতা ছাড়া অবাধ, সুষ্ঠুভাবে অনুষ্ঠিত এ নির্বাচনে ৮টি ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে ৩৯ জন, সংরক্ষিত নারী সদস্য পদে ৭৯ জন ও সাধারণ সদস্য পদে ৩০৫ জন প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেন

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *