স্বপ্নের পদ্মা সেতু

ক্ষমতার দাম্ভিকতায় পশুর আচরণ আন্ডা রফিকের

নারায়ণগঞ্জ প্রতিনিধিঃ নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জ উপজেলার কায়েতপাড়া ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী মো. জাহেদের গণসংযোগে বিদ্রোহী প্রার্থী মিজানুর রহমানের সমর্থকরা হামলা, গুলিবর্ষণ ও ককটেল বিস্ফোরণ করেছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। 
গত বুধবার (২৭ অক্টোবর) সন্ধ্যা ৭টার দিকে ইউনিয়নের নাওড়া এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। এতে ১০ সমর্থক আহত হয়েছেন বলে দাবি করেন জাহেদ আলী।
তার দাবি, ‘বুধবার প্রতীক বরাদ্দ পেয়ে আমার অনুপস্থিতিতে দলীয় নেতাকর্মীরা সন্ধ্যা ৭টার দিকে নাওড়া এলাকায় গণসংযোগ করছিল। পূর্বপরিকল্পিতভাবে বর্তমান চেয়ারম্যান রফিকুল ইসলাম রফিক ওরফে আন্ডা রফিকের ছোট ভাই আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী স্বতন্ত্র প্রার্থী মিজানুর রহমানের উপস্থিতিতে জসীম উদ্দিন জসুর নেতৃত্বে সন্ত্রাসীরা অস্ত্রশস্ত্রে সজ্জিত হয়ে অতর্কিতভাবে আমার গণসংযোগে হামলা চালায়। হামলায় বহিরাগত সন্ত্রাসীরাও অংশ নেয়।’
তিনি অভিযোগ করে বলেন, ‘হামলাকারীরা ইটপাটকেল নিক্ষেপ, ১০/১২টি ককটেল বিস্ফোরণ ও ৩/৮ ফাঁকা গুলিবর্ষণ করে আতঙ্কের সৃষ্টি করে। অ্যাকশন অ্যাকশন, ডাইরেক্ট অ্যাকশন, হাত পা কাইট্টা লা, চোখ খুইল্লা লা এমন হুমকি স্বরূপ স্লোগান দিয়ে নৌকা প্রতীকের সমর্থকদের ওপর তারা হামলা চালায়।’
স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, এক পর্যায়ে দুই পক্ষই সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে। ধাওয়া পাল্টা-ধাওয়ার ঘটনা ঘটে। হামলায় স্থানীয় আওয়ামী লীগ নেতা পচু প্রধান (৪০), ফজলুল হক (৪৫), যুবলীগ নেতা ওয়াসিম প্রধান (৩০), আমির হামজা (৪২), দুলাল (২২), ডাগু মিয়া (২৫) আহত হন। আহতদের রূপগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স ও ঢাকার বিভিন্ন হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। হামলাকারীদের ধাওয়া করে ঘটনাস্থল থেকে পুলিশ সাতটি ককটেলের খোসা উদ্ধার করেছে।
আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী ও আনারস প্রতীকের স্বতন্ত্র প্রার্থী মিজানুর রহমান সংঘর্ষের ঘটনাস্থলে তার উপস্থিতি কথা অস্বীকার করে বলেন, ‘হামলার ঘটনায় আমার কোনও কর্মী-সমর্থক জড়িত নয়।’ এর বাইরে তিনি কিছু বলতে অনীহা প্রকাশ করেন। সুষ্ঠু তদন্ত করলেই সঠিক ঘটনা বেরিয়ে আসবে বলে দাবি তার।
রূপগঞ্জ থানার ওসি এ এফ এম সায়েদ বলেন, ‘ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনকে ঘিরে আওয়ামী লীগের প্রার্থী জাহেদ আলীর সমর্থক ও আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থী মিজানুর রহমান মিজান গ্রুপের সমর্থকদের ধাওয়া পাল্টা-ধাওয়া, ইটপাটকেল নিক্ষেপ ও সংঘর্ষ হয়েছে। ঘটনাস্থল থেকে কয়েকটি ককটেলের খোসা উদ্ধার করা হয়েছে। এক পুলিশ সদস্য ইটের আঘাতে আহত হয়েছেন। নাওড়া এলাকায় অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। রাত ৯টায় পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আসে। মামলার প্রস্তুতি চলছে।’
আগামী ১১ নভেম্বর ইউপি নির্বাচনের দ্বিতীয় ধাপে কায়েতপাড়া ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে।
শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.