ঢাকা ১০:১০ অপরাহ্ন, রবিবার, ২১ এপ্রিল ২০২৪
সংবাদ শিরোনাম ::
সানাউল্লাহ বেপারীর বিভিন্ন অপরাধের কুকর্ম ফাঁস করলেন গাজী আওলাদ হোসেন বন্দরে সাজাপ্রাপ্ত ভাই বোনসহ আরও ওয়ারেন্টভূক্ত মোট ১০ আসামী গ্রেপ্তার কাঙ্ক্ষিত মানের জনশক্তি ছাড়া বিপ্লব সাধিত হয় না- মোহাম্মদ আবদুল জব্বার বন্দরের ভয়ঙ্কর ডাকাত সর্দার মামুন গ্রেফতার বাউফলে প্রাণিসম্পদ সপ্তাহ উদ্বোধন করেন আ স ম ফিরোজ বাউফলে মাদক ব্যবসায়ী নাঈম কে ৯৯ পিস ইয়াবা সহ আটক করেছেন থানা পুলিশ  কাজিম উদ্দিন প্রধানের আকস্মিক মৃত্যুতে ফারুক হোসেনের গভীর শোক প্রকাশ বন্দর উপজেলা নির্বাচনে পিতা-পুত্রসহ ৫ চেয়ারম্যান প্রার্থীর মনোনয়ন পত্র জমা ফিলিস্তিনিদের পাশে বিশ্বের সকল মুসলিমদের এগিয়ে আসতে হবে- ডাঃ সৈয়দ আব্দুল্লাহ মোঃ তাহের বাউফল কাশিপুরের অদম্য ১০ ব্যাচের বন্ধুমহলের ইফতার ও দোয়া অনুষ্ঠিত

খাল দখল করে ড্রেন নির্মানের অভিযোগ পটুয়াখালী পৌর কর্তৃপক্ষের বিরুদ্ধে

প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ১০:৫৪:৫৫ অপরাহ্ন, বুধবার, ২৩ অগাস্ট ২০২৩ ৮৪ বার পড়া হয়েছে

পটুয়াখালী প্রতিনিধিঃ মোঃ আরিফ হোসেন টিটু:পটুয়াখালীতে খাল দখল করে ড্রেন নির্মানের অভিযোগ উঠেছে পৌর কর্তৃপক্ষের বিরুদ্ধে। অভিযোগ সুত্রে, জানাযায় পৌর সভার ৮ নং ওয়ার্ডের কাটাখালী নামের ১৩’ফুট খাল উন্মুক্ত করার দাবি জানিয়েছেন অত্র এলাকার সচেতন নাগরিক মহল।এলাকাবাসীর দাবি এই এলাকায় ঘনবসতি এতো ছোট ড্রেন কোন কাজেই আসবেনা। খালের দুপাশের জমি দখলের জন্যই কথিত অসাধু ব্যাক্তিদের যোগসাজশে পৌর কর্তৃপক্ষ ড্রেন নির্মান করছেন।

এবিষয়ে গত ১৩/০৬/২৩ ইং তারিখ পৌর মেয়র মহিউদ্দিন আহমেদ এর বরাবর আবেদন ও সরাসরি খোলামেলা আলাপ করা হলেও কোন প্রতিকার আসেনি। পরবর্তীতে গত ২১/০৬/২৩ ইং তারিখ জেলা প্রশাসক বরাবর খাল উদ্ধারের আবেদন জানালেও কোন প্রতিকার পাচ্ছে না বলে লিখিত অভিযোগ করা হয়। অভিযোগকারী জাফর আহম্মেদ আরও বলেন, ড্রেন নির্মান হলে দু’পাশে জমি বৃদ্ধি পায় তাতে আমার জমিও বারে তবে আমি ও আমার প্রতিবেশীরা জলবদ্ধতার ভোগান্তিতে পরবো। তাই আমি জমি নয় খাল উদ্ধার হলে পরিবেশ ভালো হবে বর্তমানে জলবদ্ধতার কারনে মশার বংশ বিস্তার বেড়েছে। সন্ধ্যার পরে ঘরে থাকা মুশকিল ডেঙ্গুর ঝুঁকিতে রয়েছে এলাকাবাসী। এছাড়াও জেলা প্রশাসক বরাবর আবেদন করায় পৌরসভা রাতের বেলা কার্যক্রম চালিয়ে যাচ্ছে। বারবার ধরনা ধরে কোন প্রতিকার পাচ্ছেন না বলে পটুয়াখালী জেলা প্রেসক্লাব সাংবাদিকদের মাধ্যমে পৌর সভার এহেন কার্যক্রম তুলে ধরার জন্য এলাকাবাসীর পক্ষে লিখিত আবেদন জানান।

এ বিষয়ে পটুয়াখালী জেলা প্রশাসক মোঃ নুর কুতুবুল আলম বলেন, অভিযোগটি আমার যোগদানের আগে করা হয়েছে বিধায় আমি অবগত নই। অভিযোগ পত্র দেখে ব্যাবস্থা গ্রহন করা হবে।

এ ব্যাপারে পৌর মেয়র মহিউদ্দিন আহমেদ বলেন, অভিযোগকারীকে ডেকে পাঠানো হয়েছে বিষয়টি নিশ্চিত হয়ে ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে বলে জানান।

এনিয়ে ৮ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর দেলোয়ার হোসেন আকঁন বলেন, পুর্বের ন্যায় খাল উদ্ধার চায় এলাকাবাসী। আমিও জনসাধারনের পক্ষে খালটি উদ্ধার চাই।

৮ নং ওয়ার্ডের মহিলা আওয়ামীলীগের সভাপতি চম্পা মৃধা বলেন,আমরা খাল উদ্ধার চাই। খালটি উদ্ধারের জন্য পৌর সভায় আবেদন করা হলেও কোন প্রতিকার আসছেনা। এটা পৌর কর্তৃপক্ষের অনিয়ম। এই অনিয়মের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহনের দাবি জানান তিনি।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

ট্যাগস :

খাল দখল করে ড্রেন নির্মানের অভিযোগ পটুয়াখালী পৌর কর্তৃপক্ষের বিরুদ্ধে

আপডেট সময় : ১০:৫৪:৫৫ অপরাহ্ন, বুধবার, ২৩ অগাস্ট ২০২৩

পটুয়াখালী প্রতিনিধিঃ মোঃ আরিফ হোসেন টিটু:পটুয়াখালীতে খাল দখল করে ড্রেন নির্মানের অভিযোগ উঠেছে পৌর কর্তৃপক্ষের বিরুদ্ধে। অভিযোগ সুত্রে, জানাযায় পৌর সভার ৮ নং ওয়ার্ডের কাটাখালী নামের ১৩’ফুট খাল উন্মুক্ত করার দাবি জানিয়েছেন অত্র এলাকার সচেতন নাগরিক মহল।এলাকাবাসীর দাবি এই এলাকায় ঘনবসতি এতো ছোট ড্রেন কোন কাজেই আসবেনা। খালের দুপাশের জমি দখলের জন্যই কথিত অসাধু ব্যাক্তিদের যোগসাজশে পৌর কর্তৃপক্ষ ড্রেন নির্মান করছেন।

এবিষয়ে গত ১৩/০৬/২৩ ইং তারিখ পৌর মেয়র মহিউদ্দিন আহমেদ এর বরাবর আবেদন ও সরাসরি খোলামেলা আলাপ করা হলেও কোন প্রতিকার আসেনি। পরবর্তীতে গত ২১/০৬/২৩ ইং তারিখ জেলা প্রশাসক বরাবর খাল উদ্ধারের আবেদন জানালেও কোন প্রতিকার পাচ্ছে না বলে লিখিত অভিযোগ করা হয়। অভিযোগকারী জাফর আহম্মেদ আরও বলেন, ড্রেন নির্মান হলে দু’পাশে জমি বৃদ্ধি পায় তাতে আমার জমিও বারে তবে আমি ও আমার প্রতিবেশীরা জলবদ্ধতার ভোগান্তিতে পরবো। তাই আমি জমি নয় খাল উদ্ধার হলে পরিবেশ ভালো হবে বর্তমানে জলবদ্ধতার কারনে মশার বংশ বিস্তার বেড়েছে। সন্ধ্যার পরে ঘরে থাকা মুশকিল ডেঙ্গুর ঝুঁকিতে রয়েছে এলাকাবাসী। এছাড়াও জেলা প্রশাসক বরাবর আবেদন করায় পৌরসভা রাতের বেলা কার্যক্রম চালিয়ে যাচ্ছে। বারবার ধরনা ধরে কোন প্রতিকার পাচ্ছেন না বলে পটুয়াখালী জেলা প্রেসক্লাব সাংবাদিকদের মাধ্যমে পৌর সভার এহেন কার্যক্রম তুলে ধরার জন্য এলাকাবাসীর পক্ষে লিখিত আবেদন জানান।

এ বিষয়ে পটুয়াখালী জেলা প্রশাসক মোঃ নুর কুতুবুল আলম বলেন, অভিযোগটি আমার যোগদানের আগে করা হয়েছে বিধায় আমি অবগত নই। অভিযোগ পত্র দেখে ব্যাবস্থা গ্রহন করা হবে।

এ ব্যাপারে পৌর মেয়র মহিউদ্দিন আহমেদ বলেন, অভিযোগকারীকে ডেকে পাঠানো হয়েছে বিষয়টি নিশ্চিত হয়ে ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে বলে জানান।

এনিয়ে ৮ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর দেলোয়ার হোসেন আকঁন বলেন, পুর্বের ন্যায় খাল উদ্ধার চায় এলাকাবাসী। আমিও জনসাধারনের পক্ষে খালটি উদ্ধার চাই।

৮ নং ওয়ার্ডের মহিলা আওয়ামীলীগের সভাপতি চম্পা মৃধা বলেন,আমরা খাল উদ্ধার চাই। খালটি উদ্ধারের জন্য পৌর সভায় আবেদন করা হলেও কোন প্রতিকার আসছেনা। এটা পৌর কর্তৃপক্ষের অনিয়ম। এই অনিয়মের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহনের দাবি জানান তিনি।