স্বপ্নের পদ্মা সেতু

চার্জশীটভুক্ত আসামী শাকিলের নেতৃত্বে কিশোর গ্যাংয়ের অত্যাচারে অতিষ্ঠ বার্মাস্ট্যান্ডবাসী

স্টাফ রিপোর্টারঃ বর্তমান সময়ে বিভিন্ন পাড়া মহল্লায় কিশোর গ্যাং এক আতঙ্কের নাম। আর সেই আতঙ্ক বর্তমানে সিদ্ধিরগঞ্জের গোদনাইল বার্মাস্ট্যান্ড এলাকায় বিরাজ করছে। হত্যা মামলার চার্জশীটভুক্ত আসামী মাদকাসক্ত শাকিল প্রধানের নেতৃত্বে গড়ে ওঠেছে কিশোর গ্যাং। কিন্তু থানা পুলিশসহ প্রশাসনের লোকজন রয়েছে নিরব ভুমিকায়।

 

জানা যায়, নারায়ণগঞ্জের সিদ্ধিরগঞ্জ থানার গোদনাইল বার্মাস্ট্যান্ড এলাকার মৃত শাহ আলম চেয়ারম্যানের ছেলে শাকিল প্রধান (৩০) মাদক, নারী কেলেঙ্কারি সহ বিভিন্ন অপরাধের সাথে জড়িয়ে কিশোর গ্যাং তৈরি করে এলাকায় প্রভাব বিস্তার করে নানাবিধ অপকর্ম করে চলেছে। বিয়ের প্রলোভনে এক নারীর সাথে অবৈধ সম্পর্ক গড়ে আলোচনায় আসে শাকিল।

 

মাদকাসক্ত শাকিল শুধু নারী কেলেঙ্কারিই নয় স্থানীয় তেল ব্যবসায়ী নাজিম উদ্দিন ভূইয়াকে বিগত ২০১৫ সালে হত্যা করে বীরদর্পে এলাকা দাবড়িয়ে বেড়ায়। মামলা নং-৩৫। নাজিম হত্যা মামলার ২নং আসামী শাকিল প্রধান। চার্জশীটভুক্ত আসামী হলেও জামিনে রয়েছে শাকিল সহ অন্যান্য আসামীরা। চার্জশীট নং-৩৫৯। এছাড়া মাদকসক্ত ও মাদক বিক্রেতা হিসেবে রয়েছে তার যথেষ্ট পরিচিতি। নারায়ণগঞ্জ জেলা ম্যাজিস্ট্রেটের কাছে শাকিলের বিরুদ্ধে রয়েছে মাদক বিক্রেতারও অভিযোগ। যার স্মারক নং-৬৪১৮। সম্প্রতি ১৯ আগষ্ট মারামারি ও চাঁদাবাজির অভিযোগে শাকিলসহ কিশোর গ্যাংয়ের আরও কয়েকজনের বিরুদ্ধে সিদ্ধিরগঞ্জ থানায় মামলা দায়ের হয়।

 

মামলা নং-৪১। বিভিন্ন অপরাধের অভিযোগ ও মামলা থাকার পরও এলাকায় আদিপত্য বিস্তার করে দাঙ্গা হাঙ্গামা চালিয়ে যাচ্ছে। শাকিলের অন্যতম শক্তি তারই সহোদর শাহজালাল ও মামুন। কিন্তু দেখার কেউ নেই, বলার কেউ নেই। আর অন্যদিকে পুলিশতো রয়েছে নিরব দর্শকের ভুমিকায়। চিহ্নিত সন্ত্রাসী ও মাদক বিক্রেতা শাকিল প্রধান এক মূর্তিমান আতঙ্ক হয়ে বার্মাস্ট্যান্ড ও আশপাশ এলাকা যেভাবে আদিপত্য বিস্তার করছে মনে হয় কিছুদিনের মধ্যে ঐ এলাকায় আবারও রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষের আশংকা করছে এলাকাবাসী।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.