ঢাকা ০৮:৪১ অপরাহ্ন, রবিবার, ২১ এপ্রিল ২০২৪
সংবাদ শিরোনাম ::
বন্দরে সাজাপ্রাপ্ত ভাই বোনসহ আরও ওয়ারেন্টভূক্ত মোট ১০ আসামী গ্রেপ্তার কাঙ্ক্ষিত মানের জনশক্তি ছাড়া বিপ্লব সাধিত হয় না- মোহাম্মদ আবদুল জব্বার বন্দরের ভয়ঙ্কর ডাকাত সর্দার মামুন গ্রেফতার বাউফলে প্রাণিসম্পদ সপ্তাহ উদ্বোধন করেন আ স ম ফিরোজ বাউফলে মাদক ব্যবসায়ী নাঈম কে ৯৯ পিস ইয়াবা সহ আটক করেছেন থানা পুলিশ  কাজিম উদ্দিন প্রধানের আকস্মিক মৃত্যুতে ফারুক হোসেনের গভীর শোক প্রকাশ বন্দর উপজেলা নির্বাচনে পিতা-পুত্রসহ ৫ চেয়ারম্যান প্রার্থীর মনোনয়ন পত্র জমা ফিলিস্তিনিদের পাশে বিশ্বের সকল মুসলিমদের এগিয়ে আসতে হবে- ডাঃ সৈয়দ আব্দুল্লাহ মোঃ তাহের বাউফল কাশিপুরের অদম্য ১০ ব্যাচের বন্ধুমহলের ইফতার ও দোয়া অনুষ্ঠিত দুমকিতে ১ হাজার অসহায় পরিবারের মাঝে ঈদ সামগ্রী বিতরন

দুমকিতে ইউপি নির্বাচনকে কেন্দ্র করে সংঘর্ষে আহত ২

মোঃ রাকিবুল হাসান
  • আপডেট সময় : ০৯:৩০:৫৫ অপরাহ্ন, রবিবার, ৯ জুলাই ২০২৩ ৮৪২ বার পড়া হয়েছে

ইউপি নির্বাচনকে কেন্দ্র করে সংঘর্ষে আহত ২

পটুয়াখালীর দুমকীতে ইউপি নির্বাচনকে কেন্দ্র করে ৫নং শ্রীরামপুর ইউনিয়নের ২নং ওয়ার্ডের বর্তমান ইউপি সদস্য মোঃ বিপ্লব আকন(৪০) এর বিরুদ্ধে প্রতিপক্ষ ইউপি সদস্য প্রার্থী মোঃ আবদুল জলিলের সমার্থকদের ওপর দেশীয় লাঠিসোঁটা নিয়ে হামলা চালিয়ে আহত করার অভিযোগ উঠেছে।

শনিবার (৮জুলাই) দিবাগত রাত ৮টার দিকে উপজেলার লালখা’র ব্রিজ এলাকার পাহলান বাড়ি সংলগ্ন ব্রিজ পয়েন্টে এ ঘটনা ঘটে।

সূত্র জানায়, ওইদিন রাতে মোঃ জলিল হাওলাদারের (মোরগ প্রতীক) সমার্থকেরা উপজেলার পাহলান বাড়ির কাছে ব্রিজে প্রচার প্রচারণা চালানো শেষে বর্তমান ইউপি সদস্য মোঃ বিপ্লব আকন (ফুটবল প্রতীক), তাঁর মেঝ ভাই মোঃ জসিম উদ্দিন বাদল ও তাঁর সমার্থকেরা দেশীয় লাঠিসোঁটা নিয়ে অতর্কিত হামলা চালিয়ে জলিল হাওলাদারের (মোরগ প্রতীক) সমার্থক সাগর পাহলন ও বারেক পাহলানকে পিটিয়ে শরীরের বিভিন্ন স্থানে নীলা ফুলা জখম করেন। পরে স্থানীয়রা তাদের উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যায়।

অভিযোগ অস্বীকার করে বিপ্লব আকন বলেন, আমি টানা ১০ বছর মেম্বার। আমি বা আমার ভাইয়ের উপস্থিতিতে এমন কাজ ঘটতেই পারে না। তবে শুনেছি সাগর নামের একটি ছেলে আহত হয়েছে এবং তাকে হাসপাতালে নেয়া হয়েছে। আসলে জলিলের সমার্থকেরা পাহলান বাড়ির ব্রিজ এলাকায় ছিল এবং আমার সমার্থকেরা লালখা’র ব্রিজ এলাকায় ছিল। কে বা কারা মারামারি করেছে তা আমার জানা নেই।

অন্যদিকে, ইউপি সদস্য প্রার্থী আব্দুল জলিলকে গতকাল তার নির্বাচনী এলাকায় সমর্থন বিরোধিতা নিয়ে মারামারি সংগঠিত হওয়ার বিষয়ে জানতে চাইলে তিনি বলেন, নির্বাচনী সমর্থন নিয়ে মারামারি হট্টগোল এর কিছুই নাই, ভোট মানুষের অধিকার এবং মানুষ নিজের ভোটাধিকার নিজের ইচ্ছায় প্রয়োগ করবে এতে বাধা দেয়ার কিছু নেই।

আর জনগন সৎ যোগ্য লোকের পক্ষ নিবে এটাই স্বাভাবিক এতে মারামারির কিছু নেই, আমি এই মারামারির সুষ্ঠু বিচার চাই।

এবিষয়ে জানতে চাইলে উপজেলা নির্বাচন অফিসার সুমন মিয়া বলেন, এবিষয়ে একটি লিখিত অভিযোগ পেয়েছি এবং উপযুক্ত ব্যবস্থা নেয়ার জন্য সংশ্লিষ্ট দফতরে পাঠিয়েছি।

দুমকি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোঃ আবুল বাশার বলেন, এ ঘটনায় একটি সাধারণ ডায়েরি হয়েছে। তদন্ত সাপেক্ষে উপযুক্ত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

দুমকিতে ইউপি নির্বাচনকে কেন্দ্র করে সংঘর্ষে আহত ২

আপডেট সময় : ০৯:৩০:৫৫ অপরাহ্ন, রবিবার, ৯ জুলাই ২০২৩

পটুয়াখালীর দুমকীতে ইউপি নির্বাচনকে কেন্দ্র করে ৫নং শ্রীরামপুর ইউনিয়নের ২নং ওয়ার্ডের বর্তমান ইউপি সদস্য মোঃ বিপ্লব আকন(৪০) এর বিরুদ্ধে প্রতিপক্ষ ইউপি সদস্য প্রার্থী মোঃ আবদুল জলিলের সমার্থকদের ওপর দেশীয় লাঠিসোঁটা নিয়ে হামলা চালিয়ে আহত করার অভিযোগ উঠেছে।

শনিবার (৮জুলাই) দিবাগত রাত ৮টার দিকে উপজেলার লালখা’র ব্রিজ এলাকার পাহলান বাড়ি সংলগ্ন ব্রিজ পয়েন্টে এ ঘটনা ঘটে।

সূত্র জানায়, ওইদিন রাতে মোঃ জলিল হাওলাদারের (মোরগ প্রতীক) সমার্থকেরা উপজেলার পাহলান বাড়ির কাছে ব্রিজে প্রচার প্রচারণা চালানো শেষে বর্তমান ইউপি সদস্য মোঃ বিপ্লব আকন (ফুটবল প্রতীক), তাঁর মেঝ ভাই মোঃ জসিম উদ্দিন বাদল ও তাঁর সমার্থকেরা দেশীয় লাঠিসোঁটা নিয়ে অতর্কিত হামলা চালিয়ে জলিল হাওলাদারের (মোরগ প্রতীক) সমার্থক সাগর পাহলন ও বারেক পাহলানকে পিটিয়ে শরীরের বিভিন্ন স্থানে নীলা ফুলা জখম করেন। পরে স্থানীয়রা তাদের উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যায়।

অভিযোগ অস্বীকার করে বিপ্লব আকন বলেন, আমি টানা ১০ বছর মেম্বার। আমি বা আমার ভাইয়ের উপস্থিতিতে এমন কাজ ঘটতেই পারে না। তবে শুনেছি সাগর নামের একটি ছেলে আহত হয়েছে এবং তাকে হাসপাতালে নেয়া হয়েছে। আসলে জলিলের সমার্থকেরা পাহলান বাড়ির ব্রিজ এলাকায় ছিল এবং আমার সমার্থকেরা লালখা’র ব্রিজ এলাকায় ছিল। কে বা কারা মারামারি করেছে তা আমার জানা নেই।

অন্যদিকে, ইউপি সদস্য প্রার্থী আব্দুল জলিলকে গতকাল তার নির্বাচনী এলাকায় সমর্থন বিরোধিতা নিয়ে মারামারি সংগঠিত হওয়ার বিষয়ে জানতে চাইলে তিনি বলেন, নির্বাচনী সমর্থন নিয়ে মারামারি হট্টগোল এর কিছুই নাই, ভোট মানুষের অধিকার এবং মানুষ নিজের ভোটাধিকার নিজের ইচ্ছায় প্রয়োগ করবে এতে বাধা দেয়ার কিছু নেই।

আর জনগন সৎ যোগ্য লোকের পক্ষ নিবে এটাই স্বাভাবিক এতে মারামারির কিছু নেই, আমি এই মারামারির সুষ্ঠু বিচার চাই।

এবিষয়ে জানতে চাইলে উপজেলা নির্বাচন অফিসার সুমন মিয়া বলেন, এবিষয়ে একটি লিখিত অভিযোগ পেয়েছি এবং উপযুক্ত ব্যবস্থা নেয়ার জন্য সংশ্লিষ্ট দফতরে পাঠিয়েছি।

দুমকি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোঃ আবুল বাশার বলেন, এ ঘটনায় একটি সাধারণ ডায়েরি হয়েছে। তদন্ত সাপেক্ষে উপযুক্ত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।