দুমকি ছাগল চুরির অভিযোগে আ,লীগ নেতা গ্রেফতার, ফ্রিজ ভর্তি মাংস

মোঃ নুরুজ্জামান মৃধা, পটুয়াখালী জেলা প্রতিনিধিঃ পটুয়াখালীর দুমকিতে ছাগল চুরির ঘটনায় উপজেলা আওয়ামী লীগের সাংস্কৃতিক সম্পাদক মো. রেজাউল হক রাজনকে আটক করেছে পুলিশ এবং তার বাসার ফ্রিজ থেকে চুরিকৃত ছাগলের ৫ কেজি মাংস উদ্ধার করা হয়েছে। বুধবার (২৭ জুলাই) সন্ধ্যায় উপজেলার আঙ্গারিয়া ইউনিয়নের ২ নং ওয়ার্ডে এমন ঘটনাটি ঘটে। ছাগল চুরির ঘটনায় দুমকি থানায় একটি মামলা দায়ের করা হয়েছে।

থানা পুলিশ ও মামলার এজাহার সূত্রে জানা যায়, উপজেলার আঙ্গারিয়া ইউনিয়নের ২ নং ওয়ার্ডের বাসিন্দা মো. আবু গাজীর সাথে একই এলাকার বাসিন্দা মো. রেজাউল হক রাজনের পূর্ব বিরোধ চলছিলো। গতকাল বুধবার বিকেলে পূর্ব বিরোধের জের ধরে আবু গাজীর ১২ হাজার টাকা মূল্যের একটি খাসি ছাগল চুরি করে নিয়ে জবাই করে মাংস ফ্রিজে রেখে দেয় রেজাউল হক রাজন।পরবর্তীতে ঘটনাটি এলাকায় জানাজানি হলে আবু গাজী রেজাউল হক রাজনের কাছে ছাগলের বিষয়ে জানতে চাইলে রাজন তাকে অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ এবং খুন জখমের হুমকি দেন। নিরুপায় হয়ে আবু গাজী দুমকি থানায় রেজাউল হক রাজনকে আসামি করে একটি মামলা দায়ের করেন। পরে গভীর রাতে পুলিশ রেজাউল হক রাজনকে আটক করেন এবং তার বাসায় তল্লাশি চালিয়ে ফ্রিজ থেকে ৫ কেজি ছাগলের মাংস উদ্ধার করেন।
উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মো.আবুল কালাম আজাদ বলেন, ছাগলে তার (রাজনের) কৃষি পন্যের ক্ষয়ক্ষতি করেছে তাই পোলাপানে জবাই দিয়েছে এটা কিভাবে চুরি হইছে! এটি একটি মিথ্যা মামলা। দলীয় ক্ষমতার দাপট দেখিয়ে এমন কাজ করছে কি না এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, এটা সম্পূর্ণ মিথ্যা ও ভিত্তিহীন যারা এই কথা বলে তারা আওয়ামী লীগের দুশমন আওয়ামী লীগের শত্রু।
পটুয়াখালী জেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি কাজী আলমগীর বলেন, যদি ঘটনা সত্যি হয় তাহলে তার বিরুদ্ধে সাংগঠনিক ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।
দুমকি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো. আবদুস সালাম বলেন, ছাগল চুরির ঘটনায় থানায় একটি মামলা দায়ের করা হয়েছে এবং আমরা আসামিকে আটক করতে সক্ষম হয়েছি। পাশাপাশি তার বাসার ফ্রিজ থেকে চুরিকৃত ছাগলের ৫ কেজি মাংস উদ্ধার করা হয়েছে।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *