ঢাকা ০২:৩৮ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ২২ মে ২০২৪
সংবাদ শিরোনাম ::
বন্দরে দুই ট্রাকের মুখোমুখি সংঘর্ষে নিহত-১ আহত-৩ বন্দরে অসুস্থ্য জাপা নেতা ফজর আলী পাশে দাঁড়ালেন উপজেলা জাতীয় পার্টি নেতৃবৃন্দ বাবুর্চি ও দালাল চক্রের দখলে বন্দর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স বন্দরে দিনমজুরকে কুপিয়ে জখম করার ঘটনায় আওয়ামীলীগ নেতা আফজালসহ ৮ জনের বিরুদ্ধে মামলা রাইসিকে বহনকারী হেলিকপ্টার বিধ্বস্তের ঘটনায় কেউ বেঁচে নেই আড়াইহাজার উপজেলা নির্বাচনে হুইপ নজরুলের বিরুদ্ধে সংবাদ সম্মেলন গলাচিপা উপজেলা নির্বাচন সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ করতে ১৫ জন ম্যাজিস্ট্রেট মোতায়েন করা হবে ধামগড় পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ এর সখ্যতায় মদনপুরে অবৈধ ফুটপাত বাণিজ্য গলাচিপা উপজেলা নির্বাচন সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ করতে ১৫ জন ম্যাজিস্ট কলাপাড়ায় ব্যতিক্রমী আয়োজনে সহকারী প্রধান শিক্ষকের বিদায় সংবর্ধনা

দুমকীতে যৌতুকের কবলে প্রাণ গেল আরেকটি হৈমন্তী’র

প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ১১:৪৬:৩২ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২৩ ১২০ বার পড়া হয়েছে

দুমকীতে যৌতুকের কবলে প্রাণ গেল আরেকটি হৈমন্তী’র!

মোঃ রাকিবুল হাসান,(দুমকি থেকে)
দুমকি (উপজেলা) প্রতিনিধিঃ যৌতুক দিতে না পারায় বিশ্বকবি রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের ছোটগল্পের উল্লেখযোগ্য অমর চরিত্র হৈমন্তী’র মতো পটুয়াখালীর দুমকী উপজেলার উত্তর মুরাদিয়া গ্রামে গত বুধবার রাতে ইশিতা রানী(২১) নামের এক গৃহবধূকে নির্যাতন করে হত্যা করা হয়েছে বলে অভিযোগ উঠেছে শ্বশুর বাড়ির লোকজনের বিরুদ্ধে।

জানা যায়, উপজেলার উত্তর মুরাদিয়া গ্রামের ধীরেন মিস্ত্রি’র ছেলে সজলের সঙ্গে ৩ বছর আগে একই গ্রামের কেষ্ট মাঝি’র মেয়ে ইশিতা রানী’র বিয়ে হয়। তাদের সংসারে ইতিকা রানী নামের ১৬ মাসের একটি মেয়ে শিশু আছে।

নিহতের বড় বোন সংগীতা রানী আলোকিত বাংলাদেশকে জানান, বিয়ের পর স্বামী সজলের সরকারি
চাকরি(ড্রাইভার পদে) হওয়াতে শ্বাশুড়ি শোভা রানী’র সাথে যৌতুক নিয়ে ইশিতার দ্বন্দ্ব চলে আসছিল। স্বামী ও শ্বাশুড়ি যৌতুকের দাবিতে প্রায়ই তাঁকে শারীরিক ও মানসিকভাবে নির্যাতন করতেন। ফলে প্রায়ই ইশিতা ফোন করে মানসিক টেনশন, জ্বালা-যন্ত্রণার মধ্যে আছি বলতো।

শরীরের বিভিন্ন জায়গায় আঘাতের চিহ্নের কথা উল্লেখ করে তিনি আরও বলেন, আমার বোন যদি স্ট্রোক করে তাহলে সাপোসিটার দিতে গিয়ে জরায়ু বের হয়ে আসলো কেন?

এদিকে ইশিতার দেবর সুশীল মিস্ত্রী জানান, পটুয়াখালীর ইসলামিয়া ক্লিনিকে ভর্তি হওয়ার পর মঙ্গলবার(২৬ সেপ্টেম্বর) রাতে হঠাৎ বৌদি বলেছেন যারা আমাকে জন্ম দিয়েছে তারা আমাকে নিয়ে বাজে কথা বলছে(চার ভাইয়ের এক বউ) তাদের সাথে যোগাযোগ করে কি হবে? ছোটবেলা থেকে আমি কোন খারাপ কাজ করিনি, কাউকে কষ্ট দেইনি। আমার বাবা-মা আমাকে বিয়ে দিয়ে আমাকে ছেড়ে দিয়েছে। এরপর সে এক্সাইটেড হয়ে ক্লান্ত হয়ে পড়ে। এরপর ডাক্তার বরিশালে নিয়ে সিটি স্ক্যান করতে বলেন। এরপর সংগীতাকে খবর দেই।

যৌতুকের বিষয়টি অস্বীকার করে তিনি আরও জানান, দুই পরিবারের মাঝে সম্পর্কের অবনতি ছিল। এ নিয়ে দুই পরিবারের মধ্যে স্থানীয় লোকজন নিয়ে সালিশ হয়। তবে আঘাতের চিহ্ন নিয়ে প্রশ্ন করা হলে তার কোন সদুত্তর দিতে পারেন নি তিনি।

দুৃমকী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা(ওসি) মোহাম্মদ আবদুল হান্নান বলেন, লাশ ময়না তদন্তের জন্য পাঠানো হয়েছে। সুরতহাল প্রতিবেদন হাতে পেলে আসল কারন বলা যাবে।

উল্লেখ্য, গত রোববার(২৪ সেপ্টেম্বর) ইশিতা শারীরিকভাবে অসুস্থ হয়ে পড়লে পটুয়াখালী ইসলামিয়া ক্লিনিকে ভর্তি করা হয়। এর দু’দিন পরে অবস্থার অবনতি হলে বুধবার(২৭ সেপ্টেম্বর) বরিশালের রাহাত আনোয়ার হাসপাতালে ভর্তি করা হলে ওই দিন দিবাগত রাতে মৃত্যু হয়।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

ট্যাগস :

দুমকীতে যৌতুকের কবলে প্রাণ গেল আরেকটি হৈমন্তী’র

আপডেট সময় : ১১:৪৬:৩২ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২৩

দুমকীতে যৌতুকের কবলে প্রাণ গেল আরেকটি হৈমন্তী’র!

মোঃ রাকিবুল হাসান,(দুমকি থেকে)
দুমকি (উপজেলা) প্রতিনিধিঃ যৌতুক দিতে না পারায় বিশ্বকবি রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের ছোটগল্পের উল্লেখযোগ্য অমর চরিত্র হৈমন্তী’র মতো পটুয়াখালীর দুমকী উপজেলার উত্তর মুরাদিয়া গ্রামে গত বুধবার রাতে ইশিতা রানী(২১) নামের এক গৃহবধূকে নির্যাতন করে হত্যা করা হয়েছে বলে অভিযোগ উঠেছে শ্বশুর বাড়ির লোকজনের বিরুদ্ধে।

জানা যায়, উপজেলার উত্তর মুরাদিয়া গ্রামের ধীরেন মিস্ত্রি’র ছেলে সজলের সঙ্গে ৩ বছর আগে একই গ্রামের কেষ্ট মাঝি’র মেয়ে ইশিতা রানী’র বিয়ে হয়। তাদের সংসারে ইতিকা রানী নামের ১৬ মাসের একটি মেয়ে শিশু আছে।

নিহতের বড় বোন সংগীতা রানী আলোকিত বাংলাদেশকে জানান, বিয়ের পর স্বামী সজলের সরকারি
চাকরি(ড্রাইভার পদে) হওয়াতে শ্বাশুড়ি শোভা রানী’র সাথে যৌতুক নিয়ে ইশিতার দ্বন্দ্ব চলে আসছিল। স্বামী ও শ্বাশুড়ি যৌতুকের দাবিতে প্রায়ই তাঁকে শারীরিক ও মানসিকভাবে নির্যাতন করতেন। ফলে প্রায়ই ইশিতা ফোন করে মানসিক টেনশন, জ্বালা-যন্ত্রণার মধ্যে আছি বলতো।

শরীরের বিভিন্ন জায়গায় আঘাতের চিহ্নের কথা উল্লেখ করে তিনি আরও বলেন, আমার বোন যদি স্ট্রোক করে তাহলে সাপোসিটার দিতে গিয়ে জরায়ু বের হয়ে আসলো কেন?

এদিকে ইশিতার দেবর সুশীল মিস্ত্রী জানান, পটুয়াখালীর ইসলামিয়া ক্লিনিকে ভর্তি হওয়ার পর মঙ্গলবার(২৬ সেপ্টেম্বর) রাতে হঠাৎ বৌদি বলেছেন যারা আমাকে জন্ম দিয়েছে তারা আমাকে নিয়ে বাজে কথা বলছে(চার ভাইয়ের এক বউ) তাদের সাথে যোগাযোগ করে কি হবে? ছোটবেলা থেকে আমি কোন খারাপ কাজ করিনি, কাউকে কষ্ট দেইনি। আমার বাবা-মা আমাকে বিয়ে দিয়ে আমাকে ছেড়ে দিয়েছে। এরপর সে এক্সাইটেড হয়ে ক্লান্ত হয়ে পড়ে। এরপর ডাক্তার বরিশালে নিয়ে সিটি স্ক্যান করতে বলেন। এরপর সংগীতাকে খবর দেই।

যৌতুকের বিষয়টি অস্বীকার করে তিনি আরও জানান, দুই পরিবারের মাঝে সম্পর্কের অবনতি ছিল। এ নিয়ে দুই পরিবারের মধ্যে স্থানীয় লোকজন নিয়ে সালিশ হয়। তবে আঘাতের চিহ্ন নিয়ে প্রশ্ন করা হলে তার কোন সদুত্তর দিতে পারেন নি তিনি।

দুৃমকী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা(ওসি) মোহাম্মদ আবদুল হান্নান বলেন, লাশ ময়না তদন্তের জন্য পাঠানো হয়েছে। সুরতহাল প্রতিবেদন হাতে পেলে আসল কারন বলা যাবে।

উল্লেখ্য, গত রোববার(২৪ সেপ্টেম্বর) ইশিতা শারীরিকভাবে অসুস্থ হয়ে পড়লে পটুয়াখালী ইসলামিয়া ক্লিনিকে ভর্তি করা হয়। এর দু’দিন পরে অবস্থার অবনতি হলে বুধবার(২৭ সেপ্টেম্বর) বরিশালের রাহাত আনোয়ার হাসপাতালে ভর্তি করা হলে ওই দিন দিবাগত রাতে মৃত্যু হয়।