ঢাকা ০৮:৩১ অপরাহ্ন, রবিবার, ২১ এপ্রিল ২০২৪
সংবাদ শিরোনাম ::
বন্দরে সাজাপ্রাপ্ত ভাই বোনসহ আরও ওয়ারেন্টভূক্ত মোট ১০ আসামী গ্রেপ্তার কাঙ্ক্ষিত মানের জনশক্তি ছাড়া বিপ্লব সাধিত হয় না- মোহাম্মদ আবদুল জব্বার বন্দরের ভয়ঙ্কর ডাকাত সর্দার মামুন গ্রেফতার বাউফলে প্রাণিসম্পদ সপ্তাহ উদ্বোধন করেন আ স ম ফিরোজ বাউফলে মাদক ব্যবসায়ী নাঈম কে ৯৯ পিস ইয়াবা সহ আটক করেছেন থানা পুলিশ  কাজিম উদ্দিন প্রধানের আকস্মিক মৃত্যুতে ফারুক হোসেনের গভীর শোক প্রকাশ বন্দর উপজেলা নির্বাচনে পিতা-পুত্রসহ ৫ চেয়ারম্যান প্রার্থীর মনোনয়ন পত্র জমা ফিলিস্তিনিদের পাশে বিশ্বের সকল মুসলিমদের এগিয়ে আসতে হবে- ডাঃ সৈয়দ আব্দুল্লাহ মোঃ তাহের বাউফল কাশিপুরের অদম্য ১০ ব্যাচের বন্ধুমহলের ইফতার ও দোয়া অনুষ্ঠিত দুমকিতে ১ হাজার অসহায় পরিবারের মাঝে ঈদ সামগ্রী বিতরন

দুমকিতে নিজস্ব অর্থায়নে ও শ্রমে রাস্তা নির্মাণ কাজ করেছে এলাকাবাসী

মোঃ রাকিবুল হাসান
  • আপডেট সময় : ০৩:১৭:৫২ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ৭ জুলাই ২০২৩ ৩১১ বার পড়া হয়েছে

নিজস্ব অর্থায়নে ও শ্রমে রাস্তা নির্মাণ

দুমকিতে নিজস্ব অর্থায়নে ও শ্রমে রাস্তা নির্মাণ কাজ করেছে এলাকাবাসী

পটুয়াখালীর দুমকি উপজেলার লেবুখালী বাউফল মহাসড়কের দুমকি নতুন বাজারের পাশ দিয়ে দক্ষিণ দিকে আ: মজিদ ঘরামীর বাড়ি পর্যন্ত প্রায় পৌনে এক কিমি রাস্তা নির্মাণ কাজ শুরু করেছে এলাকাবাসী।

এলাকাবাসী সূত্রে জানা যায়, এ রাস্তা নির্মাণ করার উদ্যোগ নেয় পবিপ্রবির সাবেক তত্ত্বাবধায়ক প্রকৌশলী মোঃ আমির হোসেন। তিনি সর্বপ্রথম ওই এলাকার ভুক্ত ভোগীদের চলাচলের সুবিধার জন্য রাস্তা নির্মাণের দুই পাশের জমির মালিকদের কাছ থেকে জমি সংগ্রহ করেন, জমি দাতা ইঞ্জিনিয়ার আমির হোসেন, লিটন চন্দ্র শীল, আনিসুর রহমান, কালাম গাজীসহ অনেকে।

পৌনে এক কিমি রাস্তা নির্মাণ
পৌনে এক কিমি রাস্তা নির্মাণ

গত ৩ বছর পূর্বে এ রাস্তাটির কাজ শুরু করে বর্তমানে চলমান রয়েছে, নির্মাণ কাজে আর্থিক সহায়তা করেছেন আরিফুর রহমান, আঃ সালাম গাজী, খলিলুর রহমান, জাহাঙ্গীর হোসেন মাষ্টার, রমেশ চন্দ্র শীল, দিলীপ কুমার, মিজানুর রহমান,রতন হোসেন সহ আরো অনেকে। এছাড়াও ইতিমধ্যে বিআরডিবি রাস্তাটি নির্মানের জন্য ৬০হাজার টাকা অনুদান দিয়েছে।

উল্লেখ্য অত্যন্ত জনবহুল উপজেলা শ্রীরামপুর ইউনিয়নের ২ ও ৩নং ওয়ার্ডের সর্বস্তরের জনসাধারণের চলাচলের এক মাত্র মাধ্যম এরাস্তাটি দিয়ে দৈনিক প্রায় পাঁচ সহস্রাধিক পথচারী যাতায়াত করে। পবিপ্রবি, সরকারি জনতা কলেজ, সৃজনী বিদ্যানিকেতন সহ প্রায় ডজন খানেক শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের কর্মকর্তা, শিক্ষক, শিক্ষার্থী, বিভিন্ন অফিস, ব্যাংক ও ব্যাবসায়িদের অনেক দুর্ভোগ পোহাতে হয় যাতায়াতে। বিশেষ করে বর্ষার দিনে মহিলা ও শিশু শিক্ষার্থীদের যাতায়াতে চরম ভোগান্তির শিকার হচ্ছে।

এব্যাপারে ভুক্ত ভোগীদের মধ্যে রতন হোসেন বলেন, আমরা রাস্তার দু’পাশের সবাই মিলে সাধ্যমত আর্থিক সহায়তা ও শ্রম দিয়ে নিরলসভাবে কাজ করছি যাতে দ্রুত এলাকার সর্বস্তরের মানুষের ভোগান্তির লাঘব হয়।এবং আমি নিজেও সাধ্যমতো অ অর্থ দিয়েছি।

রাস্তাটি নির্মানের উদ্যোক্তা পবিপ্রবির সাবেক তত্ত্বাবধায়ক প্রকৌশলী মোঃ আমির হোসেন বলেন, ইতিমধ্যে আমার ঐকান্তিক প্রচেষ্টায় ও এলাকার সকলকে নিয়ে নিজস্ব অর্থায়নে ও শ্রমে রাস্তা নির্মাণের কাজ করে যাচ্ছি। ইতিমধ্যে স্হানীয় সরকার মন্ত্রণালয়ের রাস্তার আইডি নাম্বার পড়েছে।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

দুমকিতে নিজস্ব অর্থায়নে ও শ্রমে রাস্তা নির্মাণ কাজ করেছে এলাকাবাসী

আপডেট সময় : ০৩:১৭:৫২ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ৭ জুলাই ২০২৩

দুমকিতে নিজস্ব অর্থায়নে ও শ্রমে রাস্তা নির্মাণ কাজ করেছে এলাকাবাসী

পটুয়াখালীর দুমকি উপজেলার লেবুখালী বাউফল মহাসড়কের দুমকি নতুন বাজারের পাশ দিয়ে দক্ষিণ দিকে আ: মজিদ ঘরামীর বাড়ি পর্যন্ত প্রায় পৌনে এক কিমি রাস্তা নির্মাণ কাজ শুরু করেছে এলাকাবাসী।

এলাকাবাসী সূত্রে জানা যায়, এ রাস্তা নির্মাণ করার উদ্যোগ নেয় পবিপ্রবির সাবেক তত্ত্বাবধায়ক প্রকৌশলী মোঃ আমির হোসেন। তিনি সর্বপ্রথম ওই এলাকার ভুক্ত ভোগীদের চলাচলের সুবিধার জন্য রাস্তা নির্মাণের দুই পাশের জমির মালিকদের কাছ থেকে জমি সংগ্রহ করেন, জমি দাতা ইঞ্জিনিয়ার আমির হোসেন, লিটন চন্দ্র শীল, আনিসুর রহমান, কালাম গাজীসহ অনেকে।

পৌনে এক কিমি রাস্তা নির্মাণ
পৌনে এক কিমি রাস্তা নির্মাণ

গত ৩ বছর পূর্বে এ রাস্তাটির কাজ শুরু করে বর্তমানে চলমান রয়েছে, নির্মাণ কাজে আর্থিক সহায়তা করেছেন আরিফুর রহমান, আঃ সালাম গাজী, খলিলুর রহমান, জাহাঙ্গীর হোসেন মাষ্টার, রমেশ চন্দ্র শীল, দিলীপ কুমার, মিজানুর রহমান,রতন হোসেন সহ আরো অনেকে। এছাড়াও ইতিমধ্যে বিআরডিবি রাস্তাটি নির্মানের জন্য ৬০হাজার টাকা অনুদান দিয়েছে।

উল্লেখ্য অত্যন্ত জনবহুল উপজেলা শ্রীরামপুর ইউনিয়নের ২ ও ৩নং ওয়ার্ডের সর্বস্তরের জনসাধারণের চলাচলের এক মাত্র মাধ্যম এরাস্তাটি দিয়ে দৈনিক প্রায় পাঁচ সহস্রাধিক পথচারী যাতায়াত করে। পবিপ্রবি, সরকারি জনতা কলেজ, সৃজনী বিদ্যানিকেতন সহ প্রায় ডজন খানেক শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের কর্মকর্তা, শিক্ষক, শিক্ষার্থী, বিভিন্ন অফিস, ব্যাংক ও ব্যাবসায়িদের অনেক দুর্ভোগ পোহাতে হয় যাতায়াতে। বিশেষ করে বর্ষার দিনে মহিলা ও শিশু শিক্ষার্থীদের যাতায়াতে চরম ভোগান্তির শিকার হচ্ছে।

এব্যাপারে ভুক্ত ভোগীদের মধ্যে রতন হোসেন বলেন, আমরা রাস্তার দু’পাশের সবাই মিলে সাধ্যমত আর্থিক সহায়তা ও শ্রম দিয়ে নিরলসভাবে কাজ করছি যাতে দ্রুত এলাকার সর্বস্তরের মানুষের ভোগান্তির লাঘব হয়।এবং আমি নিজেও সাধ্যমতো অ অর্থ দিয়েছি।

রাস্তাটি নির্মানের উদ্যোক্তা পবিপ্রবির সাবেক তত্ত্বাবধায়ক প্রকৌশলী মোঃ আমির হোসেন বলেন, ইতিমধ্যে আমার ঐকান্তিক প্রচেষ্টায় ও এলাকার সকলকে নিয়ে নিজস্ব অর্থায়নে ও শ্রমে রাস্তা নির্মাণের কাজ করে যাচ্ছি। ইতিমধ্যে স্হানীয় সরকার মন্ত্রণালয়ের রাস্তার আইডি নাম্বার পড়েছে।