নিত্যপ্রয়জনীয় দ্রব্যমূল্যের বৃদ্ধির প্রতিবাদে বিএনপির বিক্ষোভ সমাবেশ

 ছবি/ -সংগ্রহীত;

মোঃ নুরুজ্জামান,পটুয়াখালী সদর প্রতিনিধিঃ পটুয়াখালীতে নিত্যপ্রয়জনীয় দ্রব্যমূল্যের উর্ধ্বগতির প্রতিবাদে বিক্ষোভ সমাবেশ পটুয়াখালীতে বিএনপির বিক্ষোভ সমাবেশ শুরুর আগেই ছাত্রলীগ, স্বেচ্ছাসেবক লীগের বিরুদ্ধে দফায় দফায় হামলার অভিযোগ উঠেছে।

বুধবার (২ মার্চ) সকাল সাড়ে নয়টার দিকে পৌর শহরের বনানী রোডে জেলা বিএনপির কার্যালয়ের সামনে এ ঘটনা ঘটে। পরে পরিস্থিতি স্বাভাবিক রাখতে পুলিশ ২/৩ রাউন্ড টিয়ারসেল নিক্ষেপ করেন।
হামলায় আহত জেলা ছাত্রদলের সভাপতি শফিউল বাশার উজ্জ্বল বলেন, জয় বাংলা স্লোগান দিয়ে ছাত্রলীগ ও স্বেচ্ছাসেবক লীগের নেতাকর্মীরা আমাদের উপর হকস্টিক, লাঠি এবং রান্দা নিয়ে অতর্কিত হামলা করে। এতে প্রায় আমাদের ২০/২৫ জন নেতাকর্মী আহত হন। যাদের মধ্যে কিছু লোক ক্লিনিকে ও সদর হাসপাতালে চিকিৎসা নিচ্ছে বর্তমানে।

পটুয়াখালী জেলা বিএনপির আহবায়ক আলহাজ্ব আব্দুর রশিদ চুন্নু মিয়া জানান, দেশব্যাপি নিত্যপ্রয়জনীয় দ্রব্যমূল্যের লাগামহীন উর্ধ্বগতির প্রতিবাদে বিএনপির কর্মসূচির অংশ হিসেবে পটুয়াখালী জেলা বিএনপি কার্যালয়ের সামনে অবস্থান করছিলাম আমরা। বিক্ষোভ সমাবেশ সকাল ১১ টায় হবার কথা থাকলেও সকাল ৯/১০ টার দিকে ছাত্রলীগ ও স্বেচ্ছাসেবক লীগের নেতাকর্মী এসে হামলা করে আমাদের উপর।
পরে দুপুরে আবার পটুয়াখালী ২৫০ শয্যা বিশিষ্ট হাসপাতালের সামনে আহত নেতাকর্মীদের দেখে বিক্ষোভ সমাবেশ করেন বিএনপির নেতাকর্মীরা।

এদিকে ছাত্রলীগ ও স্বেচ্ছাসেবক লীগের বিরুদ্ধে বিএনপির অভিযোগ অস্বীকার করে জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা আলহাজ্ব মোঃ কাজী আলমগীর হোসেন বলেন, ছাত্রলীগ ও স্বেচ্ছাসেবক লীগ বিএনপির উপর কোনো হামলা করেনি। বরং তাদের দলের নিজেদের মধ্যেই মারামারি ও হামলা চালিয়েছে।

এবিষয়ে পটুয়াখালী সদর থানার অফিসার ইনচার্জ ওসি মোঃ মনিরুজ্জামান বলেন, বর্তমানে পরিস্থিতি স্বাভাবিক আছে এবং শহরের মধ্যে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *