স্বপ্নের পদ্মা সেতু

নোয়াখালী শহরে নীরব চাঁদাবাজি চলছে এমপি একরাম

মোঃ মাসুদ রানা, নোয়াখালী প্রতিনিধি।নোয়াখালী শহরে নীরব চাঁদাবাজি চলছে’ বলে জেলা প্রশাসক ও পুলিশ সুপারের সামনে প্রকাশ্য মন্তব্য করেছেন নোয়াখালী-৪ আসনের সংসদ সদস্য একরামুল করিম চৌধুরী।

বৃহস্পতিবার (২৮ জুলাই) সকালে নোয়াখালী প্রেসক্লাব মিলনায়তনে একটি বেসরকারি টেলিভিশন চ্যানেলের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর অনুষ্ঠানে তিনি এমন মন্তব্য করেন।

একরামুল করিম চৌধুরী বলেন, কেউ ঘর উঠাতে পারে না। কেউ বাড়ি ঘর উঠাতে গেলে….। আমি আপনাদের নিশ্চয়তা দিচ্ছি। নো বোডি টাচ ইউ।

এসময় সুধারাম থানার ওসিকে ইঙ্গিত করে তিনি বলেন, আপনি ধরেন। কে কোন দলের হল এটা আমার ব্যাপার না। কিন্তু চাঁদাবাজি হতে পারবে না। এই যে বাজিকর বাড়ি (মাইজদী বাজার), এখানে দুনিয়ার আকাম (খারাপ কাজ) হয়। এখানে ২০-২৫ জন ছেলে আছে যারা সারাক্ষণ মাদক ব্যবসার সাথে জড়িত থাকে। আপনারা কঠোর হন। মেয়েরা সন্ধ্যার পর চলাচল করতে পারে না। এসব রিপোর্ট আমার কাছে আসলে আমি এমপি হিসেবে লজ্জাবোধ করি।

অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন নোয়াখালী জেলা প্রশাসক দেওয়ান মাহবুবুর রহমান, নোয়াখালী পুলিশ সুপার শহিদুল ইসলাম, সুধারাম মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আনোয়ারুল ইসলামসহ জেলায় কর্তব্যরত বিভিন্ন প্রিন্ট ও ইলেকট্রনিক মিডিয়ার সাংবাদিকৃন্দ।

সংসদ সদস্যের মন্তব্যের বিষয়ে জানতে চাইলে সুধারাম মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আনোয়ারুল ইসলাম বলেন, ‘স্যার (এমপি একরামুল করিম চৌধুরী) আমাকে গতকাল বলছে। তবে আমরা চাঁদাবাজির কোনো নির্দিষ্ট অভিযোগ পাইনি। আর যারা মাদকের সাথে জড়িত তাদের প্রতিনিয়তই গ্রেফতার করা হচ্ছে। তবে কেউ সুনির্দিষ্ট অভিযোগ দিলে আমরা আইনানুগ ব্যবস্থা নেবো।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.