পটুয়াখালীতে ভোগ দখলীয় রেকর্ডীয় জমি দখলের পায়তারায় মারধর থানায় অভিযোগ

পটুয়াখালী প্রতিনিধিঃ মোঃ আরিফ হোসেন টিটু,পটুয়াখালী সদর উপজেলাধীন ইটবাড়ীয়া ইউনিয়নে সোহরাব হোসেনের ছেলে মোঃ সাহেদুল ইসলাম রনি এর ভোগ দখলীয় ও রেকর্ডীয় জমি দখলের পায়তারায় তাকে মারধর করে আহত করে একই বাড়ীর লোকজন । আশে পাশের লোকজন তাকে উদ্ধার করে পটুয়াখালী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করেন। এঘটানাটি ঘটে ১৬ নভেম্বর রাত সাড়ে ৯টার দিকে আহত রনির বসতবাড়ীর সামনের উঠানে।

এ বিষয়ে মোঃ সাহেদুল ইসলাম রনি পটুয়াখালী সদর থানায় হামলাকারী মোঃ মনির খান (৪০), মোঃ গোলাম মোস্তফা ফকির(৫৫), মোঃ খোকন হাওলাদার (৪৮), মোসাঃ মঞ্জিলা বেগম(৬০), মোঃ মিজানুর রহমান(৩৫) এর বিরুদ্ধে লিখিত অভিযোগ করেন।
অভিযোগে জানাযায়, আহত রনি এবং হামলাকারীরা একই বাড়ীর আত্মীয়-স্বজন। রনির নানা ওসমান গনি হাওলাদার তাকে ভালবেসে তার সম্পত্তির কিছু অংশ দলিল করে দেন। কিন্তু উপরোক্তরা এ বিষয়টি মেনে নেয় না। তারা রনির জায়গা দখলের চেষ্টা চালাতে থাকে। এ নিয়ে রনির সাথে তাদের বিরোধ চলে আসছে। গত ১২.১১.২০২২ তারিখ রনির নানা মৃত্যুবরণ করেন এবং ১৬.১১.২২ তারিখ ওসমান গনি হাওলাদারের মৃত্যুতে খাবার আয়োজন করা হয়, ঐ সময় জমি-জমা নিয়ে রনির সাথে তাদের কথাকাটাকাটি হয়। এসময় তারা রনির উপর উত্তেজিত হয়ে এলোপাথারি মারধর করে শরীরের বিভিন্ন স্থানে নীলা ফোলা জখম করে। এসময় রনির ডাকচিৎকার শুনে অন্যান্য আত্মীয়-স্বজন ও আশে পাশের লোকজন এগিয়ে এসে তাকে উদ্ধার করে হাসপাতালে ভর্তি করেন। এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত সে হাসপাতালে ভর্তি ছিল।
রনি হাসপাতালে ভর্তি অবস্থায় জানান, তারাও আমাকে ফাঁসাতে হাসপাতালে ভার্তি হয়েছে। কিন্তু তাদেরকে হাসপাতালের বিছানায় পাওয়া যায়নি। তারা মিথ্যা মামলা করার জন্য শুধু হাসপাতালে ভর্তি হয়ে কাগজ সংগ্রহ করেছেন।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *