পটুয়াখালী ধরান্দী জমি সংক্রান্ত বিরোধে কুপিয়ে জখম ১জন

পটুয়াখালী জমি সংক্রান্ত বিরোধের জেরে ওমর ফারুক নামের এক ব্যক্তির উপর সন্ত্রাসী হামলার ঘটনায় মামলা
পটুয়াখালী সংবাদদাতা:
পটুয়াখালী কমলাপুর ইউনিয়নে এক ব্যক্তিকে খুন করার চেষ্টায় সন্ত্রাসী হামলার অভিযোগ পাওয়া গেছে। ঘটনা টি ঘটেছে পটুয়াখালীর কমলাপুর ইউনিয়নের মধ্য ধরান্দী গ্রামে। ঘটনা সুত্রে জানা যায় মোঃ শাহ আলম মিয়া( ৪৫) এবং তার ভাইদের সাথে মোঃশহিদুল ইসলাম আমিরুল পাহলান এবং কালাম পাহলান ওরফে কালু পাহলান গং দের সাথে দীর্ঘদিন ধরে জমিজমা সংক্রান্ত বিরোধ চলে আসছিল। গত ২৫ তারিখ বুধবার আনুমানিক সকাল সাড়ে ছয়টা দিকে স্থানীয় শহিদুল ইসলাম, বশির, খলিল, আজিজুল হক সান্টু, কালু, পারভেজ, ফিরোজ, রেজাউল, মোয়াজ্জেম সহ আরো অনেকেই পূর্ব পরিকল্পিতভাবে দেশীয় দা, রট, রামদা, অস্ত্র নিয়ে ফারুকের উপর অতর্কিত হামলা চালায় । হত্যার উদ্দেশ্যে শরীরের বিভিন্ন অংশে ধারালো দায়ের কোপে তিনি অচেতন হয়ে পড়লে স্থানীয় রা তাকে হাসপাতালে নিয়ে আসে তার মাথায় চারটি গুরুতর দায়ের কোপের আঘাত রয়েছে। তিনি বর্তমানে পটুয়াখালী সরকারি মেডিকেল কলেজে চিকিৎসাধীন রয়েছেন। তার আঘাত গুরুতর বলে জানিয়েছেন কর্তব্যরত চিকিৎসক। থানায় গেলে কোন এক অদৃশ্য কারণে মামলা নেয়া হয়নি। উল্টো মিথ্যা মামলা সাজিয়ে ভিকটিমদের বিরুদ্ধে থানা থেকে এজাহার করা হয়েছে। এই শহিদুল বাহিনীর খলিল এর নামে বর্তমানে হত্যা মামালা চলমান রয়েছে। এ ব্যাপারে কোর্টে ৯ জনের নামে মামলা দেওয়া হয়েছে।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *