স্বপ্নের পদ্মা সেতু

পটুয়াখালীতে ২৫ বছর যাবত বঙ্গবন্ধু সৃতি সংসদের জমি প্রভাবশালীদের দখলে

মোঃ মামুন কাজী,পটুয়াখালী প্রতিনিধিঃঃ- পটুয়াখালী সদর উপজেলার মরিচবুনিয়া ইউনিয়নের পাটুখালী ৯নং ওয়ার্ডে কৃষক দিনমজুর ইউনুস হাওলাদার ১৯৯৭ সনে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ তথা বঙ্গবন্ধু কে ভালবেসে তার সৃতি ধরে রাখতে মুষ্টি কয়ক স্থানীয় ব্যক্তিদের উদ্যগে স্থানীয় মাপে প্রায় ৫ শতাংশ জমি দান করেন। মুক্তিযুদ্ধ বিরোধী সরকার ক্ষমতায় থাকার কারনে তৎকালীন সময়ের বিএনপির নেতারা উক্ত দান কৃত জমি দখল করে ভবন নির্মাণ করে তাদের রাজনৈতিক ক্লাব সৃষ্টি করে। পরে কালের বিবর্তনে উক্ত জমি উপর ভবন নির্মাণ করে তা ব্যবসায়িক কার্যক্রম পরিচালনা করে আসছেন বর্তমান বিরোধী দলের স্থানীয় নেতারা আর তাদের সাথে মিলেছে কথিত কিছু আওয়ামী লীগের স্থানীয় নেতারা। সরজমিনে গেলে দেখা যায় পাটুখালী ৭১ নং মৌজার ১৭৩১ দাগে পাকা ভবন নির্মাণ করে ব্যবসায়িক কার্যক্রম চালানো হচ্ছে। নির্মাণ কৃত ভবনের মালিক সাবেক চেয়ারম্যান বশির উদ্দিন সিকদারকে এ ব্যপারে ফোন করলে তিনি উক্ত বিষয় এড়িয়ে জান। দান কৃত জমি দাতা মোঃ ইউনুস হাওলাদার জানান, ১৯৯৭ সানে আমরা স্থানীয় কিছু ব্যক্তি মোঃ নুরুল হক কাজী,মোঃ তুফান মৃধা, মোঃ মজিবর সহ বেশ কিছু লোক মিলে আমরা বঙ্গবন্ধু সৃতি সংসদের নামে আমার নিজ জমি দান করি যাতে করে আমরা যারা আওয়ামী লীগের সমর্থন করি তারা যেন একটি নির্দিষ্ট স্থানে বসে আলাপ আলোচনা করতে পারি অবসর সময় পার করার জন্য এবং আমাদের অত্র ইউনিয়নের আগামী প্রজন্ম বঙ্গবন্ধুর জিবন সমন্ধে সঠিক তথ্য পেতে পারে তার ব্যবস্থা করা যায় এ লক্ষ্য এ জমি দান করা হয়। কিন্তু তা আমাদের স্থানীয় নেতাদের সজনপ্রিতির জন্য এবং বিরোধী দলীয় নেতাদের প্রভাবে উক্ত জমিটি বেদখল হয়। এবিষয়ে এ রিপোর্ট লেখার আগে ইউনুস হাওলাদার ও নুরুল হক কাজী তৎকালীন সময়ের ধর্ম প্রতি মন্ত্রী জনাব আলহাজ্ব এডভোকেট শাজাহান মিয়ার কাছে গেলেও কোন প্রকার ফয়সাল মেলেনি বলে জানান।

সার্বিক বিষয় অত্র এলাকার স্থানীয় বসবাসরত ব্যক্তিরা জানান, মুষ্টি কয়েক স্থানীয় প্রভাবশালী ব্যক্তি ও বিরোধী দলীয় নেতাদের ক্ষমতার কারনে সাধারণ মানুষ এ নিয়ে জোড়ালো পদক্ষেপ নিতে অগ্রহ প্রকাশ করতে অপরাগতা জানান।

আরোও বিস্তারিত থাকছে আগামী সংখ্যায়।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.