বাউফলে ধর্ষণের উদ্দেশ্যে খালি ঘরে এক কিশোরীকে শ্লীতাহানি

বাউফলে ধর্ষণের উদ্দেশ্যে খালি ঘরে এক কিশোরীকে শ্লীতাহানি

পটুয়াখালীর বাউফলে খালি ঘরে ঢুকে ঘরের দরজা আটকিয়ে জোরপূর্বকভাবে মোসা: জুলেখা আক্তার (১৩) নামের এক কিশোরীকে ধর্ষণের উদ্দেশ্যে শ্লীতাহানি করেছে এক যুবক বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ ঘটনার অভিযোগে থানায় মামলা দায়ের করা হয়েছে।

মঙ্গলবার (১৭ আগষ্ট ) ভিকটিমের মা নাসিমা বেগম বাদী হয়ে মো: এবাদুল ইসলাম (২৫) এর বিরুদ্ধে এ মামলা দায়ের করেন। এবাদুল উপজেলার সদর ইউনিয়নের ৫নং ওয়ার্ডভুক্ত শান্ত গ্রামের বাসিন্দা মোহাম্মদ আফসার খানের ছেলে। এবাদুল ঢাকার সোনারগাঁও ইউনিভার্সিটির শিক্ষার্থী।

মামলা সূত্রে পুলিশ জানান, গত রোববার (৮ আগষ্ট-২০২১ ইং) বেলা ১১টার দিকে ভিকটিমের মা-বাবা কাজের উদ্দেশ্যে সকালে বেড়িয়ে গেলে ভিকটিম ঘরে একা থাকা অবস্থায় আসামি এবাদুল ঘরে টুকে ঘরের দরজা আটকিয়ে ধর্ষণের উদ্দেশ্যে জোরপূর্বক ভিকটিমকে শ্লীতাহানি করে। এসময় ভিকটিম কান্নাকাটিসহ ভয়ে কাপতে কাপতে অসুস্থ হয়ে পড়লে আসামি এবাদুল চলে যায়।

বাদী নাসিমা বেগম বলেন, কাজ শেষে দুপুরের দিকে বাসায় আসলে মেয়েকে অসুস্থ অবস্থায় দেখতে পাই এবং জিঞ্জাসা করলে মেয়ে সকল ঘটনা খুলে বলে। পরে এ ঘটনা স্থানীয় গন্যমান্যদেরকে জানানো হয় এবং তাদের পরামর্শক্রমে মামলা করা হয়েছে।

এবিষয়ে বাউফল থানার ওসি আল-মামুন প্রতিবেদককে বলেন, ভিকটিমের জবানবন্দি নিয়ে মামলা রুজু করা হয়েছে এবং আসামিকে গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *