ঢাকা ০৬:৪২ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ২০ এপ্রিল ২০২৪
সংবাদ শিরোনাম ::
কাঙ্ক্ষিত মানের জনশক্তি ছাড়া বিপ্লব সাধিত হয় না- মোহাম্মদ আবদুল জব্বার বন্দরের ভয়ঙ্কর ডাকাত সর্দার মামুন গ্রেফতার বাউফলে প্রাণিসম্পদ সপ্তাহ উদ্বোধন করেন আ স ম ফিরোজ বাউফলে মাদক ব্যবসায়ী নাঈম কে ৯৯ পিস ইয়াবা সহ আটক করেছেন থানা পুলিশ  কাজিম উদ্দিন প্রধানের আকস্মিক মৃত্যুতে ফারুক হোসেনের গভীর শোক প্রকাশ বন্দর উপজেলা নির্বাচনে পিতা-পুত্রসহ ৫ চেয়ারম্যান প্রার্থীর মনোনয়ন পত্র জমা ফিলিস্তিনিদের পাশে বিশ্বের সকল মুসলিমদের এগিয়ে আসতে হবে- ডাঃ সৈয়দ আব্দুল্লাহ মোঃ তাহের বাউফল কাশিপুরের অদম্য ১০ ব্যাচের বন্ধুমহলের ইফতার ও দোয়া অনুষ্ঠিত দুমকিতে ১ হাজার অসহায় পরিবারের মাঝে ঈদ সামগ্রী বিতরন অয়ন ওসমানের নেতৃত্বে নারায়ণগঞ্জ মহানগর ছাত্রলীগের ইফতার বিতরন

হাজীগঞ্জ এম সার্কেস বিআইডব্লিউটিসির বিরুদ্ধে ১২শ শতাংশ জমি দখলের অভিযোগ

নিজস্ব প্রতিবেদক
  • আপডেট সময় : ০৯:৫৬:০৯ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৬ ডিসেম্বর ২০২৩ ৬০ বার পড়া হয়েছে

বিআইডব্লিউটিসি’র বিরুদ্ধে জমি দখলের অভিযোগ

সিদ্ধিরগঞ্জে বিআইডব্লিউটিসির বিরুদ্ধে মীর মাহবুব হোসেন রাসেলের মালীকানাধীন ১২৪৪ শতাংশ জমি দখল করে স্থাপনা নির্মানের অভিযোগ উঠেছে।

২৪ ডিসেম্বর (রোববার) সিদ্ধিরগঞ্জের এসিআই পানিরকল এলাকায় ভুক্তভোগীর পৈতৃক রেকর্ডীয় মালিকানাধীন ১২৪৪ শতাংশ জমিতে স্থাপনা নির্মাণের উদ্দেশ্যে লোকজন নিয়ে উপস্থিত হয় বিআইডব্লিউটিসি। এসময় ভুক্তভোগী পরিবার স্থাপনা নির্মান কাজে বাধা দেয়। পরবর্তীতে পুলিশ এসে পরিস্তিতি নিয়ন্ত্রনে আনে। এ ঘটনায় সিদ্ধিরগঞ্জ থানায় লিখিত অভিযোগ করেছে ভুক্তভোগীরা।

ভুক্তভোগীরা অভিযোগ করে, এ জমিতে উচ্চ আদালতের নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে জোরপূর্বক দখল এবং স্থাপনা নির্মান চেষ্টা করে বিআইডব্লিউটিসি। ১২৪৪ শতাংশ এ জমি নিয়ে উচ্চ আদালতে দীর্ঘ এক যুগ ধরে বিআইডব্লিউটিসি’র সাথে মালিক পক্ষের মামলা চলমান রয়েছে। জমিতে উচ্চ আদালত রীট পিটিশন করেন, যার নাম্বার ১৩৭৮৮/২৩। উক্ত রুল থাকা সত্যেও বিআইডব্লিউটিসি জমি দখলের অপচেষ্টা চালায়। এসময় ভুক্তভোগীরা ৯৯৯-এ ফোন করে পুলিশকে জানালে ঘটনাস্থলে পুলিশ এসে আদালতের নির্দেশ উভয়পক্ষকে মেনে শান্ত থাকার নির্দেশনা দেয়।

এ বিষয় ঘটনাস্থলে উপস্থিত থাকা বিআইডব্লিউটিসির সহ-মহাব্যবস্থাপক আব্দুল আলিম বলেন, আমরা তো আসলে চাকরি করি। আমাদের যেটা করতে বলা হয়, আমরা সেটাই করি। রোববার আমরা সেখানে যাই কিছু রুম তোলার জন্য। কারণ আমাদের গার্ডদরে রুম ব্যবস্থা ভালো নেই। তাই সেখানে কিছু গার্ডরুম তোলার নির্দেশে সেখানে উপস্থিত হই। আমাদের যা নির্দেশ দেয় সেটা করি। এখন আজ আমার এখানে চাকরি আছে, কাল অন্য জায়গায় বদলি করে দিলে আমার সেখানে যেতে হবে। এখানে তো আমার ব্যক্তিস্বার্থ নেই। আর যে যায়গা নিয়ে অভিযোগ সেটা পরিতেক্ত ছিলো পরবর্তীতে ৭০ সাল থেকে সরকার নৌ মন্ত্রনালকে সেই জায়গা দিয়ে দিয়েছে।

ঠিকাদার টিটিু মিয়া বলেন, আমি একজন ঠিকাদার মাত্র। আমি বিআইডাব্লুটিসির হয়ে বেশ কয়েকটা কাজ করেছি। আমাকে বলা হয়েছিলো সেখানে গার্ডদের জণ্য রুম এবং একটি গেইট করে দিতে। আমি সেটা করতেই গিয়েছিলাম। কিন্তু সেখানে রাসেল ভাই কাজে বাধা দেয় এবং সেই সম্পত্তি তার পৈত্রিক সুত্রের জানায়। যতোটুকু জানি আগামীকাল মঙ্গলবার ওই পরবিার এবং বিআইডাব্লুটিসি বসবে।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

হাজীগঞ্জ এম সার্কেস বিআইডব্লিউটিসির বিরুদ্ধে ১২শ শতাংশ জমি দখলের অভিযোগ

আপডেট সময় : ০৯:৫৬:০৯ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৬ ডিসেম্বর ২০২৩

সিদ্ধিরগঞ্জে বিআইডব্লিউটিসির বিরুদ্ধে মীর মাহবুব হোসেন রাসেলের মালীকানাধীন ১২৪৪ শতাংশ জমি দখল করে স্থাপনা নির্মানের অভিযোগ উঠেছে।

২৪ ডিসেম্বর (রোববার) সিদ্ধিরগঞ্জের এসিআই পানিরকল এলাকায় ভুক্তভোগীর পৈতৃক রেকর্ডীয় মালিকানাধীন ১২৪৪ শতাংশ জমিতে স্থাপনা নির্মাণের উদ্দেশ্যে লোকজন নিয়ে উপস্থিত হয় বিআইডব্লিউটিসি। এসময় ভুক্তভোগী পরিবার স্থাপনা নির্মান কাজে বাধা দেয়। পরবর্তীতে পুলিশ এসে পরিস্তিতি নিয়ন্ত্রনে আনে। এ ঘটনায় সিদ্ধিরগঞ্জ থানায় লিখিত অভিযোগ করেছে ভুক্তভোগীরা।

ভুক্তভোগীরা অভিযোগ করে, এ জমিতে উচ্চ আদালতের নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে জোরপূর্বক দখল এবং স্থাপনা নির্মান চেষ্টা করে বিআইডব্লিউটিসি। ১২৪৪ শতাংশ এ জমি নিয়ে উচ্চ আদালতে দীর্ঘ এক যুগ ধরে বিআইডব্লিউটিসি’র সাথে মালিক পক্ষের মামলা চলমান রয়েছে। জমিতে উচ্চ আদালত রীট পিটিশন করেন, যার নাম্বার ১৩৭৮৮/২৩। উক্ত রুল থাকা সত্যেও বিআইডব্লিউটিসি জমি দখলের অপচেষ্টা চালায়। এসময় ভুক্তভোগীরা ৯৯৯-এ ফোন করে পুলিশকে জানালে ঘটনাস্থলে পুলিশ এসে আদালতের নির্দেশ উভয়পক্ষকে মেনে শান্ত থাকার নির্দেশনা দেয়।

এ বিষয় ঘটনাস্থলে উপস্থিত থাকা বিআইডব্লিউটিসির সহ-মহাব্যবস্থাপক আব্দুল আলিম বলেন, আমরা তো আসলে চাকরি করি। আমাদের যেটা করতে বলা হয়, আমরা সেটাই করি। রোববার আমরা সেখানে যাই কিছু রুম তোলার জন্য। কারণ আমাদের গার্ডদরে রুম ব্যবস্থা ভালো নেই। তাই সেখানে কিছু গার্ডরুম তোলার নির্দেশে সেখানে উপস্থিত হই। আমাদের যা নির্দেশ দেয় সেটা করি। এখন আজ আমার এখানে চাকরি আছে, কাল অন্য জায়গায় বদলি করে দিলে আমার সেখানে যেতে হবে। এখানে তো আমার ব্যক্তিস্বার্থ নেই। আর যে যায়গা নিয়ে অভিযোগ সেটা পরিতেক্ত ছিলো পরবর্তীতে ৭০ সাল থেকে সরকার নৌ মন্ত্রনালকে সেই জায়গা দিয়ে দিয়েছে।

ঠিকাদার টিটিু মিয়া বলেন, আমি একজন ঠিকাদার মাত্র। আমি বিআইডাব্লুটিসির হয়ে বেশ কয়েকটা কাজ করেছি। আমাকে বলা হয়েছিলো সেখানে গার্ডদের জণ্য রুম এবং একটি গেইট করে দিতে। আমি সেটা করতেই গিয়েছিলাম। কিন্তু সেখানে রাসেল ভাই কাজে বাধা দেয় এবং সেই সম্পত্তি তার পৈত্রিক সুত্রের জানায়। যতোটুকু জানি আগামীকাল মঙ্গলবার ওই পরবিার এবং বিআইডাব্লুটিসি বসবে।