ভক্তের সাথে ছবি তোলা নিয়ে দ্বন্দ্বে আটক হলেন জনপ্রিয় কন্টেন্ট ক্রিয়েটর সাদ্দাম মাল

পটুয়াখালী প্রতিনিধিঃ মোঃ আরিফ হোসেন টিটু পটুয়াখালীর কুয়াকাটায় জনপ্রিয় ইউটিউব চ্যানেল কুয়াকাটা মাল্টিমিডিয়ার কন্টেন্ট ক্রিয়েটর সাদ্দাম মালকে এক ভক্তের অভিযোগে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

সোমবার ( ২১ নভেম্বর) ভোর ৫টায় কুয়াকাটা হোটেল বনানাী প্যালেস থেকে সাদ্দাম মালের এক বন্ধু সুমন সিকদার সহ দু’জনকে গ্রেফতার করে মহিপুর থানা পুলিশ। এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন মহিপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আবুল খায়ের।

মামলা সূত্রে জানা যায়, রবিবার সন্ধ্যায় বরগুনা থেকে কুয়াকাটায় ঘুরতে আসে সাদিক ও তার পরিবার। পরে ফ্রাই পট্টির মধ্যে মাছ ফ্রাই খাওয়ার জন্য অবস্থান করিলে সাদ্দাম মালসহ কয়েকজন একত্রিত হইয়া তাদেরকে অশ্লীল ভাষায় গালিগালাজ করে। সাদিক প্রতিবাদ করলে ক্ষীপ্ত হইয়া তাদেরকে এলোপাথারী কিল ঘুষি মারিয়া ফুলা জখম করে। পরে সাদিক মহিপুর থানায় আইনের আশ্রয় নেন বলে মামলায় বলা হয়।

এব্যাপারে কুয়াকাটা মাল্টিমিডিয়া ইউটিউব চ্যানেলের পরিচালক শুভ কবির জাগো নিউজকে বলেন, রবিবার রাতে সাদ্দাম মালকে দেখে সেলফি তোলার জন্য বরগুনা থেকে আগত ৬-৭ জনের একটি গুরুপ এগিয়ে আসে একই সময় তালতলী থেকে আগত আরো দু’জন ভক্ত সেলফি তুলতে চায়। তখন এই সেলফি তুলতে আসা দুই গুরুপের মধ্যে কথা কাটাকাটি হলে সাদ্দাম তাদের মিমাংসা করার চেষ্টায় এগিয়ে আসে।

এক পর্যায়ে বরগুনা থেকে আসা সাদিকুর রহমান নামের এক ভক্ত তার সাথে থাকা লোকজন নিয়ে একটি গন্ডগোল তৈরি করে পরে অভিনেতা সাদ্দাম মালকে উদ্দেশ্যে করে অশ্লীল ভাষায় গালাগালি করলে সাদ্দাম মাল প্রতিবাদ করেলে এক পর্যায়ে দুই দুই গুরুপের মধ্যে হাতাহাতি হয়।

তিনি আরো জানান, কুয়াকাটা মাল্টিমিডিয়ার জনপ্রিয়তাকে হেয়প্রতিপন্ন করার জন্য পরিকল্পিত ভাবে আজকের এই ঘটনা ঘটিয়েছে তাঁরা। আমরা এর সুষ্ঠ বিচার চাই এবং তীব্র প্রতিবাদ ও নিন্দা জানাই।

মহিপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবুল খায়ের বলেন, বরগুনা থেকে আসা এক ব্যাক্তির অভিযোগে ভিত্তিতে আমরা সাদ্দাম মাল সহ দু’জনকে আটক করেছি। পরে আদলতে প্রেরণ করেছি।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *