স্বপ্নের পদ্মা সেতু

মতলব উত্তরে এক ইউনিয়নে নৌকার মাঝি হতে চান ১৫ জন

মতলব উত্তর প্রতিনিধিঃ চাঁদপুরের মতলব উত্তর উপজেলার আসন্ন ফতেপুর পূর্ব ইউপি নির্বাচনে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ থেকে নৌকা প্রতীক চান ১৫ জন। শনিবার বিকালে লুধুয়া হাইস্কুল এন্ড কলেজের সভাকক্ষে আয়োজিত ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের বর্ধিত সভা অনুষ্ঠিত হয়।
 সভায় উপস্থিত ছিলেন, চাঁদপুর জেলা আওয়ামী লীগের আইন বিষয়ক সম্পাদক অ্যাড. রুহুল আমিন সরকার, উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধা এমএ কুদ্দুস, সম্মেলন প্রস্তুতি কমিটির আহ্বায়ক মিয়া মোঃ জাহাঙ্গীর, উপজেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক শাহজাহান প্রধান, শিক্ষা বিষয়ক সম্পাদক সিরাজুল ইসলাম জমাদার। এছাড়াও সভায় প্রতিটি ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।
ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক কাজী সালাউদ্দিনের সঞ্চালনায় ১৫ জন প্রার্থী নৌকা প্রতীক পাওয়ার আশায় নিজেদের বায়োডাটা জমা দেন। এরা হলেন- মতলব উত্তর উপজেলা ছাত্র লীগের সাবেক সভাপতি এহসান কবির,  সাবেক চেয়ারম্যান গোলাম নবী বাদল, উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম- সাধারণ সম্পাদক কবির হোসেন মাস্টার, চাঁদপুর জেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের গ্রন্থনা ও প্রকাশনা বিষয়ক সম্পাদক মিয়া মোঃ আসাদুজ্জামান, ইউনিয়ন আ’লীগের সংগ্রামী সাধারণ সম্পাদক কাজী মোঃ সালাউদ্দিন, সহ-সভাপতি নুরুল ইসলাম পাটোয়ারী, যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক জয়নাল আবেদীন, আওয়ামী লীগ নেতা আবুল হাশেম, উপজেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের যুগ্ম-আহ্বায়ক তাজুল ইসলাম পাটোয়ারী, ইউনিয়ন যুবলীগের সভাপতি আবুল হাসনাত, ইউনিয়ন কৃষকলীগের সভাপতি এমরান হোসেন চৌধুরী রাজু, সাবেক যুবলীগ নেতা নেতা লুৎফর রহমান,  বর্তমান চেয়ারম্যান আজমল হোসেন চৌধুরী, ডিকে আরিফ ও শাহাদাত হোসেন।
সভা শেষে উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বীর মুক্তিযোদ্ধা এমএ কুদ্দুস বলেন, আসন্ন ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন কেন্দ্র করে তৃণমূল থেকে নৌকা মনোনীত প্রার্থীর জন্য নাম ও বায়োডাটা সংগ্রহ করা হয়েছে। প্রতিটি ইউনিয়ন অত্যান্ত সুশৃক্সখলভাবে আমরা বর্ধিত সভার মাধ্যমে তথ্য সংগ্রহ করেছি। এই কাগজপত্র জেলা আওয়ামী লীগের কাছে পাঠানো হবে। সেখান থেকে জেলা আওয়ামী লীগ কেন্দ্রে পাঠাবেন, পরে যাচাই বাছাই করে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা নৌকা প্রতীক দিবেন। এক প্রশ্নের জবাবে এমএ কুদ্দুস বলেন, তৃণমূলের সমর্থনের ভিত্তিতে যেসব প্রার্থীরা বেশি জনপ্রিয় এবং সাথে সকল প্রার্থীদের মধ্যে যার ব্যাপারে যেমন তথ্য পেয়েছি, আমরা তাদের বায়োডাটার সাথে উপজেলা আওয়ামী লীগ মতামত উল্লেখ করে দিব। তিনি বলেন, ১৬ থেকে ২০ অক্টোবরের মধ্যে মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর রাজনৈতিক কার্যালয় থেকে প্রার্থীদেরকে নৌকা প্রতীকের আবেদন ফরম সংগ্রহ করতে হবে।
শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.