ঢাকা ১০:১৮ অপরাহ্ন, রবিবার, ২১ এপ্রিল ২০২৪
সংবাদ শিরোনাম ::
সানাউল্লাহ বেপারীর বিভিন্ন অপরাধের কুকর্ম ফাঁস করলেন গাজী আওলাদ হোসেন বন্দরে সাজাপ্রাপ্ত ভাই বোনসহ আরও ওয়ারেন্টভূক্ত মোট ১০ আসামী গ্রেপ্তার কাঙ্ক্ষিত মানের জনশক্তি ছাড়া বিপ্লব সাধিত হয় না- মোহাম্মদ আবদুল জব্বার বন্দরের ভয়ঙ্কর ডাকাত সর্দার মামুন গ্রেফতার বাউফলে প্রাণিসম্পদ সপ্তাহ উদ্বোধন করেন আ স ম ফিরোজ বাউফলে মাদক ব্যবসায়ী নাঈম কে ৯৯ পিস ইয়াবা সহ আটক করেছেন থানা পুলিশ  কাজিম উদ্দিন প্রধানের আকস্মিক মৃত্যুতে ফারুক হোসেনের গভীর শোক প্রকাশ বন্দর উপজেলা নির্বাচনে পিতা-পুত্রসহ ৫ চেয়ারম্যান প্রার্থীর মনোনয়ন পত্র জমা ফিলিস্তিনিদের পাশে বিশ্বের সকল মুসলিমদের এগিয়ে আসতে হবে- ডাঃ সৈয়দ আব্দুল্লাহ মোঃ তাহের বাউফল কাশিপুরের অদম্য ১০ ব্যাচের বন্ধুমহলের ইফতার ও দোয়া অনুষ্ঠিত

যশোর-৪ নির্বাচনী এলাকার উন্নয়নের সাথে আছি এবং থাকবো, ইন্জিনিয়ার আরশাদ পারভেজ

প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ০৪:৪৯:৩১ অপরাহ্ন, সোমবার, ১৭ জুলাই ২০২৩ ২১৮ বার পড়া হয়েছে

বেনাপোল প্রতিনিধি
যশোর-৪ (অভয়নগর-বাঘারপাড়া ও সদরের বসুন্দিয়া) নিয়ে গঠিত। এ আসনের ভোটাররা মনে করছেন আগামী নির্বাচনে এই আসনটিতে প্রার্থী পরিবর্তন হবে। আসবে নতুন মুখ। সে হিসেবে বেশ কয়েকজন প্রার্থী নিজেদের যোগ্যতা প্রমাণের জন্য মাঠে নেমেছেন। তরুণ, মেধাবী, ব্যবসায়ী হিসেবে ইতিমধ্যে এই আসনে বিভিন্ন এলাকার মানুষের মনের মাঝে ব্যাপক পরিচয়-পরিচিতি হয়ে সাড়া ফেলেছেন, জননেতা তারুন্যের প্রতিক ইন্জিনিয়ার আরশাদ পারভেজ। নির্বাচনী এলাকা ঘুরে জানা গেছে, সাধারণ ভোটারদের অভিমত তারা সংসদ সদস্য হিসেবে নতুন এবং তরুণ, মেধাবী, শিক্ষিত, সৎ, নম্র, ভদ্র মুখ দেখতে চান। যারা এলাকার উন্নয়নের জন্য কাজ করবে তাকেই ভোট দেবেন। এজন্য মাঠেও নেমেছেন ইঞ্জিনিয়ার আরশাদ পারভেজ। স্থানীয়রা জানান, পর পর তিনবার শেখ হাসিনা যেমন তার সরকার গঠনে নতুন মুখের চমক দেখিয়েছেন। তেমনি আগামী নির্বাচনী যশোর-৪ আসনে নতুন মুখ হিসেবে কাউকে দেবেন। এই আসনে নতুন কেউ বিজয়ী হলে উন্নয়ন, অগ্রগতি ও বিভিন্ন কাজে আসবে গতির ধারা। সেই হিসেবে নতুনদের মধ্যে পছন্দের তালিকায় এগিয়ে যশোর জেলা আওয়ামী লীগের সদস্য ইঞ্জিনিয়ার আরশাদ পারভেজ। ইঞ্জিনিয়ার আরশাদ পারভেজ আওয়ামী লীগের বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিষয়ক উপ-কমিটির সদস্য ছিলেন। ২০১৮ সালের জাতীয় নির্বাচন পরিচালনা কমিটি তথ্য ও প্রযুক্তি বিষয়ক কমিটির সদস্য হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছেন। বর্তমানে আওয়ামী লীগের বন ও পরিবেশ উপ-কমিটির সদস্য হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন। এছাড়া তিনি বঙ্গবন্ধু প্রকৌশল পরিষদের সদস্য হিসেবে দায়িত্বে রয়েছেন। বাংলাদেশ ইনস্টিটিউট অফ ইঞ্জিনিয়ার্স কম্পিউটার বিজ্ঞান ও প্রকৌশল বিভাগের সদস্য হিসেবে ভূমিকা রেখে চলেছেন। আরশাদ পারভেজ প্রসঙ্গে কথা হয়, অভয়নগর উপজেলার সিদ্দিপাশা ইউনিয়নের আমতলা গ্রামের হান্নান শেখের সাথে। তিনি বলেন, আমরা এলাকার উন্নয়নে সৎ, যোগ্য, মেধাবী ও পরিচ্ছন্ন রাজনৈতিক ব্যক্তিকে যশোর-৪ আসনের প্রার্থী হিসেবে দেখতে চাই। আর এসব আছে নওয়াপাড়ার সন্তান আরশাদ পারভেজের মধ্যে। বসুন্দিয়া গ্রামের আবু তাহেরের সাথে কথা হয়। তিনি বলেন, আমরা এলাকার উন্নয়নে সৎ, যোগ্য, মেধাবী ও পরিচ্ছন্ন রাজনৈতিক ব্যক্তিকে যশোর-৪ আসনের প্রার্থী হিসেবে দেখতে চাই।শংকরপাশা গ্রামের সোরাফ হোসেন জানান, আগামী জাতীয় নির্বাচনে নতুন ও তরুণরা নেতৃত্ব দেবেন। এজন্য আরশাদ পারভেজ মেধাবী, চৌকস, বুদ্ধিমান এবং আগামী দিনের নেতৃত্বে বলিষ্ঠবান। এ অঞ্চলের মানুষের উন্নয়নে সে অগ্রণী ভূমিকা রাখবে।
কথা হয়, বাঘারপাড়া উপজেলার মাহমুদপুর গ্রামের আলাউদ্দিন সাথে। তিনি বলেন, আমরা যে উন্নয়ন দেখতে চেয়েছিলাম, তা দেখতে পারিনি। বাঘারপাড়ার মানুষ আজ হতাশ। এ কারণে আমরা নতুন প্রার্থী দেখতে চায়। যিনি এলাকার মানুষের সাথে মিলেমিশে থাকবে। নিয়মিত এলাকায় আসবে। মানুষের সুখ-দুঃখে থাকবে তাকেই আগামী নির্বাচনে প্রার্থী চাই।

আগামী নির্বাচন নিয়ে কথা হয়, ইঞ্জিনিয়ার আরশাদ পারভেজের সাথে। তিনি বলেন, এলাকার উন্নয়নে আমি সব সময় সবার সাথে ছিলাম। আগামীতেও থাকবো। জাতীয় নির্বাচনে আওয়ামী লীগের পক্ষে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করেছি। নেত্রী যাকে মনোনয়ন দেবে আমি তার সাথে থাকবো। নেত্রী যদি আমাকে মনোনয়ন দেয়, তাহলে আমি নির্বাচন করবো। যাকে মনোনয়ন দেবে তার নির্বাচন করবো। আগামী নির্বাচনে আমি মনোনয়ন পেয়ে জয়লাভ করি তাহলে বাঘারপাড়া ও অভয়নগরকে স্মার্ট উপজেলা হিসেবে গড়ে তুলবো। এলাকায় বিনোদন ও খেলার মাঠ না থাকার কারণে যুবকেরা মোবাইল নির্ভর হয়ে পড়েছে, এবিষয়টি আমাকে বেশ ভাবায়। তাই আমার পরিকল্পনা আছে দুই উপজেলায় উপযুক্ত খেলার মাঠ তৈরি করা। যাতে তারা মাদক থেকে দূরে থাকে। বিভিন্ন খেলাধুলার মাধ্যমে তাদের সংযুক্ত করা হলে তাদের মন ভালো থাকবে। নওয়াপাড়া নৌবন্দরকে আধুনিক ও ব্যবসা বান্ধব পরিবেশ গড়ে তুলে বেকার সমস্যা সমাধান করা হবে। তাই আগামী দিনে দৃষ্টিনন্দন, পরিবেশ বান্ধব ও ক্লিন পরিবেশের সাথে স্মার্ট দুটি উপজেলা গড়ে তুলতে চাই। এ জন্য তিনি সকলের কাছে ভালোবাসা, দোয়া ও আশীর্বাদ কামনা করেন।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

ট্যাগস :

যশোর-৪ নির্বাচনী এলাকার উন্নয়নের সাথে আছি এবং থাকবো, ইন্জিনিয়ার আরশাদ পারভেজ

আপডেট সময় : ০৪:৪৯:৩১ অপরাহ্ন, সোমবার, ১৭ জুলাই ২০২৩

বেনাপোল প্রতিনিধি
যশোর-৪ (অভয়নগর-বাঘারপাড়া ও সদরের বসুন্দিয়া) নিয়ে গঠিত। এ আসনের ভোটাররা মনে করছেন আগামী নির্বাচনে এই আসনটিতে প্রার্থী পরিবর্তন হবে। আসবে নতুন মুখ। সে হিসেবে বেশ কয়েকজন প্রার্থী নিজেদের যোগ্যতা প্রমাণের জন্য মাঠে নেমেছেন। তরুণ, মেধাবী, ব্যবসায়ী হিসেবে ইতিমধ্যে এই আসনে বিভিন্ন এলাকার মানুষের মনের মাঝে ব্যাপক পরিচয়-পরিচিতি হয়ে সাড়া ফেলেছেন, জননেতা তারুন্যের প্রতিক ইন্জিনিয়ার আরশাদ পারভেজ। নির্বাচনী এলাকা ঘুরে জানা গেছে, সাধারণ ভোটারদের অভিমত তারা সংসদ সদস্য হিসেবে নতুন এবং তরুণ, মেধাবী, শিক্ষিত, সৎ, নম্র, ভদ্র মুখ দেখতে চান। যারা এলাকার উন্নয়নের জন্য কাজ করবে তাকেই ভোট দেবেন। এজন্য মাঠেও নেমেছেন ইঞ্জিনিয়ার আরশাদ পারভেজ। স্থানীয়রা জানান, পর পর তিনবার শেখ হাসিনা যেমন তার সরকার গঠনে নতুন মুখের চমক দেখিয়েছেন। তেমনি আগামী নির্বাচনী যশোর-৪ আসনে নতুন মুখ হিসেবে কাউকে দেবেন। এই আসনে নতুন কেউ বিজয়ী হলে উন্নয়ন, অগ্রগতি ও বিভিন্ন কাজে আসবে গতির ধারা। সেই হিসেবে নতুনদের মধ্যে পছন্দের তালিকায় এগিয়ে যশোর জেলা আওয়ামী লীগের সদস্য ইঞ্জিনিয়ার আরশাদ পারভেজ। ইঞ্জিনিয়ার আরশাদ পারভেজ আওয়ামী লীগের বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিষয়ক উপ-কমিটির সদস্য ছিলেন। ২০১৮ সালের জাতীয় নির্বাচন পরিচালনা কমিটি তথ্য ও প্রযুক্তি বিষয়ক কমিটির সদস্য হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছেন। বর্তমানে আওয়ামী লীগের বন ও পরিবেশ উপ-কমিটির সদস্য হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন। এছাড়া তিনি বঙ্গবন্ধু প্রকৌশল পরিষদের সদস্য হিসেবে দায়িত্বে রয়েছেন। বাংলাদেশ ইনস্টিটিউট অফ ইঞ্জিনিয়ার্স কম্পিউটার বিজ্ঞান ও প্রকৌশল বিভাগের সদস্য হিসেবে ভূমিকা রেখে চলেছেন। আরশাদ পারভেজ প্রসঙ্গে কথা হয়, অভয়নগর উপজেলার সিদ্দিপাশা ইউনিয়নের আমতলা গ্রামের হান্নান শেখের সাথে। তিনি বলেন, আমরা এলাকার উন্নয়নে সৎ, যোগ্য, মেধাবী ও পরিচ্ছন্ন রাজনৈতিক ব্যক্তিকে যশোর-৪ আসনের প্রার্থী হিসেবে দেখতে চাই। আর এসব আছে নওয়াপাড়ার সন্তান আরশাদ পারভেজের মধ্যে। বসুন্দিয়া গ্রামের আবু তাহেরের সাথে কথা হয়। তিনি বলেন, আমরা এলাকার উন্নয়নে সৎ, যোগ্য, মেধাবী ও পরিচ্ছন্ন রাজনৈতিক ব্যক্তিকে যশোর-৪ আসনের প্রার্থী হিসেবে দেখতে চাই।শংকরপাশা গ্রামের সোরাফ হোসেন জানান, আগামী জাতীয় নির্বাচনে নতুন ও তরুণরা নেতৃত্ব দেবেন। এজন্য আরশাদ পারভেজ মেধাবী, চৌকস, বুদ্ধিমান এবং আগামী দিনের নেতৃত্বে বলিষ্ঠবান। এ অঞ্চলের মানুষের উন্নয়নে সে অগ্রণী ভূমিকা রাখবে।
কথা হয়, বাঘারপাড়া উপজেলার মাহমুদপুর গ্রামের আলাউদ্দিন সাথে। তিনি বলেন, আমরা যে উন্নয়ন দেখতে চেয়েছিলাম, তা দেখতে পারিনি। বাঘারপাড়ার মানুষ আজ হতাশ। এ কারণে আমরা নতুন প্রার্থী দেখতে চায়। যিনি এলাকার মানুষের সাথে মিলেমিশে থাকবে। নিয়মিত এলাকায় আসবে। মানুষের সুখ-দুঃখে থাকবে তাকেই আগামী নির্বাচনে প্রার্থী চাই।

আগামী নির্বাচন নিয়ে কথা হয়, ইঞ্জিনিয়ার আরশাদ পারভেজের সাথে। তিনি বলেন, এলাকার উন্নয়নে আমি সব সময় সবার সাথে ছিলাম। আগামীতেও থাকবো। জাতীয় নির্বাচনে আওয়ামী লীগের পক্ষে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করেছি। নেত্রী যাকে মনোনয়ন দেবে আমি তার সাথে থাকবো। নেত্রী যদি আমাকে মনোনয়ন দেয়, তাহলে আমি নির্বাচন করবো। যাকে মনোনয়ন দেবে তার নির্বাচন করবো। আগামী নির্বাচনে আমি মনোনয়ন পেয়ে জয়লাভ করি তাহলে বাঘারপাড়া ও অভয়নগরকে স্মার্ট উপজেলা হিসেবে গড়ে তুলবো। এলাকায় বিনোদন ও খেলার মাঠ না থাকার কারণে যুবকেরা মোবাইল নির্ভর হয়ে পড়েছে, এবিষয়টি আমাকে বেশ ভাবায়। তাই আমার পরিকল্পনা আছে দুই উপজেলায় উপযুক্ত খেলার মাঠ তৈরি করা। যাতে তারা মাদক থেকে দূরে থাকে। বিভিন্ন খেলাধুলার মাধ্যমে তাদের সংযুক্ত করা হলে তাদের মন ভালো থাকবে। নওয়াপাড়া নৌবন্দরকে আধুনিক ও ব্যবসা বান্ধব পরিবেশ গড়ে তুলে বেকার সমস্যা সমাধান করা হবে। তাই আগামী দিনে দৃষ্টিনন্দন, পরিবেশ বান্ধব ও ক্লিন পরিবেশের সাথে স্মার্ট দুটি উপজেলা গড়ে তুলতে চাই। এ জন্য তিনি সকলের কাছে ভালোবাসা, দোয়া ও আশীর্বাদ কামনা করেন।