স্বপ্নের পদ্মা সেতু

শারদীয় শুভেচ্ছা জানিয়েছেন- বাংলাদেশ হিন্দু বৌদ্ধ খৃষ্টান ঐক্য পরিষদ ৪নং চররুহিতা শাখা

শারদীয় শুভেচ্ছা জানিয়েছেন- বাংলাদেশ হিন্দু বৌদ্ধ খৃষ্টান ঐক্য পরিষদ ৪নং চররুহিতা শাখা

মোঃ সাইফুল ইসলামঃ শারদীয় শুভেচ্ছা জানিয়েছেন- বাংলাদেশ হিন্দু বৌদ্ধ খৃষ্টান ঐক্য পরিষদ ৪নং চররুহিতা শাখার সভাপতি রামদেব দাস রামু ও সাধারণ সম্পাদক সঞ্জয় সরকার।

সঞ্জয় সরকার- ধর্মীয় উৎসবের দুটি দিক। একটি শাস্ত্রীয় আনুষ্ঠানিকতা, প্রার্থনা প্রভৃতি। আরেকটি সামাজিক দিক। শাস্ত্রীয় আনুষ্ঠানিকতা শুধু ধর্মাবলম্বী ভক্তদের জন্য। কিন্তু উৎসবের সামাজিক–সাংস্কৃতিক দিকটি খুব বড়। সেটা ধর্মবর্ণ–নির্বিশেষে সবার জন্য।

সনাতন ধর্মাবলম্বীদের বৃহত্তম ধর্মীয় উৎসব দুর্গাপূজা। শাস্ত্রমতে, এই সময় দেবী দুর্গা মর্ত্যে আসেন, দশমীর দিন বিসর্জনের মধ্য দিয়ে তাঁর বিদায়।

দুর্ভিক্ষ, মহামারি প্রভৃতি দুর্যোগ মানুষের পৃথিবীতে থাকবেই। সনাতন ধর্মাবলম্বীদের বিশ্বাস, দুর্গতি থেকে মানুষকে মুক্তি দিতেই দুর্গতিনাশিনীর মর্ত্যে আগমন। এবার মাতৃরূপী দেবী দুর্গা এসেছেন দোলায়। পূজার পরে মা যাবেন গজে। করোনার প্রতিকূলতার মধ্যে দুর্গাপূজা হচ্ছে। ভক্তরা অঞ্জলি দেবেন। মায়ের আরতি হবে। ভক্তদের প্রত্যাশা, পৃথিবী হবে আবার দুর্গতিমুক্ত।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.