স্বপ্নের পদ্মা সেতু

সোনাকান্দা যুব সমাজের উদ্যোগে- আলহাজ্ব শাহেন শাহ উঠান বৈঠক অনুষ্ঠিত

এমদাদুল হক মিলনঃ  গত ১০ডিসম্বর শুক্রবার বিকেলে সোনাকান্দা নামাপাড়া স্কুল রোড সংলগ্ন এলাকায় এক ওঠান বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়েছে। উক্ত উঠান বৈঠকে শাহেন শাহ তার বক্তব্যে বলেন।

নারায়ণগঞ্জ সিটি কপোরেশনের মেয়র অনেক উন্নয়ন করেছে। কিন্তু ২০নং ওর্য়াডে কোন উন্নয়নের চিত্র দেখা যায় নি।বর্তমান যিনি আছে তিনি অনেক সুবিধা বাদী,ইচ্ছে করলে অনেক উন্নয়ন করতে পারতো।২০নং ওর্য়াডের কোন কাজ ই হয় নি।সব টাকা ওনি খেয়ে ছেন।শতশত টাকা এসেছে অথচ এই নামাপাড়া একটি টাকা ও কাজে লাগায় নি।এখন নির্বাচনের সময় এসেছে। এখন আর বাড়িঘর ছাড়ছেনা।কিন্তু ওনি এখন আপনাদের যা চাইবেন তাই দিবে।তারপর আর এই পাঁচ বছরের জন্য দেখা যাবে না। ওনি একজন বেনামাজী ওনি মসজিদ দখল করে রাখছেন।আমি ওনার মসজিদে এখন আসর নামাজ পরে আসলাম। দেখলাম ওনি মসজিদের পাশে ভোট চাচ্ছে নামাজ রেখে।

যে নামাজ পরে না যার ভিতর ঈমান নাই ওনি মুসলমান না।পাঁচ বছরে কিছু করে নাই এখন ওনি করোনার দোহাই দিচ্ছে। তাই আপনাদের বলছি। আপনাদের বিবেক আছে। আপনারা বিবেক খাঁটিয়ে ভোট টা দিবেন।সিটি কপোরেশনের দুটি কাজ হয়েছে একটি খোকন মৃধার দুতালা বিল্ডিং আর একটি বর্তমান কাউন্সিলার এর টুপ্লাক্স বিল্ডিং। অতএব আপনাদের মা বোনেরা বয়স্ক ভাতা কার্ড আনতে গেলে বলেছে ওনি বাসায় নেই।অথচ খবর নিয়ে দেখা গেছে বাড়ির ভিতরে ওনি ঘুমাচ্ছে।অতএব আপনারা সবাই সচেতন হন অল্প কিছু টাকার জন্য আপনাদের বিবেক কে বিক্রি করবেন না। আপনারা বিবেচনা করেন যাকে সবসময় পাবেন যার বাড়িতে দুতিন টি ঘেট নাই তাকে ভোট দেন।আমি কথা দিচ্ছি এই পাঁচ বছর আপনাদের পাশে থাকবো ইনশাআল্লাহ। পরে তিনি দুটি নির্বাচন পরিচালনা ক্যাম্প উদ্ভোদন করেন।

এই সময় উপস্থিত ছিলেন  মোঃ নাসির মিয়া, কামাল মিয়া, জাহাঙ্গীর হোসেন ,সানছুল্লাহ হক,ফরহাদ মিয়া,কুট্টি মিয়া,তাইজুল ইসলাম,মহিউদ্দিন মিয়া,জসিম উদ্দিন,মনির হোসেন, আসু মিয়া ,তুহিন মিয়া, আহম্মদ আলী, রাজীব এর সঞ্চালনায় অন্য দের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন ,আলী মিয়া সোহেল মিয়া ,আক্তার , মাসুম শফিক ,আতিক সজীব।প্রমূখ

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.