হবিগঞ্জে লাখাইয়ে করোনা আক্রান্ত এক স্কুল শিক্ষিকার মৃত্যু

হবিগঞ্জে লাখাইয়ে করোনা আক্রান্ত এক স্কুল শিক্ষিকার মৃত্যু

হবিগঞ্জ জেলা প্রতিনিধি।। হবিগঞ্জেন লাখাই উপজেলার করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে এক শিক্ষিকার মৃত্যু বরণ করেছেন। সৎকার করেন উপজেলা দাহ কমিটির সদস্যবৃন্দ।জানা যায়, উপজেলার পশ্চিম বামৈর দেবন্দ্র চন্দ্র দেবনাথ এর মেয়ে ফরদাবাদ সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষিকা জয়ন্তী দেবনাথ( ৩৮) করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত মৃত্যু বরন করেন।

পারিবারিক সুত্রে জানাযায়, ১৫ই আগষ্ট শ্বাসকষ্ট জানিত সমস্যা দেখা দিলে লাখাই উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক করোনা টেষ্ট করার পরামর্শ দেন। পরামর্শ ক্রমে করোনা টেস্ট করালে রিপোর্ট পজেটিভ আসে, তার পর রোগীকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের করোনা ওয়ার্ডে রাখা হয়, রুগীর অবস্থা অবনিত হলে রোগীকে হবিগঞ্জ সদর হাসপাতালে রেফার করা হয়, পরে উন্নত চিকিৎসার জন্য সিলেটের একটি হাসপাতালে নিয়ে গেলে ১৭ই আগষ্ট গভীর রাত্রে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মৃত্যু বরণ করেন। করোনা আক্রান্ত হয়ে মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করেন শিক্ষিকার ভাই বামৈ সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক সবিচরন দেবনাথ। উল্লেখ্য, করোনা ভাইরাসের ভয়ে কোন লোক এগিয়ে না আসায় সনাতনধর্মালম্বীর করোনা সৎকারে নিয়োজিত লাখাই উপজেলা কমিটির আহবায়ক সাংবাদিক আশীষ দাশ গুপ্ত সহ ৪ সদস্য বিশিষ্ট একটি টিম সৎকার সম্পন্ন করেন। সৎকারে টিমে ছিলেন মিন্টু লাল দাশ, বিদান মোদক, শমিরন শীল, হবিগঞ্জ হিন্দু ধর্মীয় কল্যান ট্রাষ্টের সহকারী পরিচালক জগদীশ চন্দ্র রায়, সার্বিক সহযোগিতা করেন। সৎকাজে স্হানীয় কয়েকজন ব্যক্তি ও উপজেলার কয়েকজন শিক্ষক দাহ কমিটিকে দূরে থেকে সহযোগিতা করেন। এ বিষয়ে লাখাই উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা লুসি কান্ত হাজং বলেন সৎকাজে ভয় পাওয়ার কোন কারন নেই মৃত্যুর তিন ঘন্টা পর মৃত্যু ব্যক্তির দেহে কোন জীবানু থাকে না,। তিনি আরো বলেন জীবন থাকতে মাস্ক পরিধান করতে চায়না কিন্তু মানুষ মারা গেলে মৃত্যু ব্যক্তির বাড়িতে যায় না মৃত্যু ব্যক্তিকে ধরে না।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *