ঢাকা ০৭:৫০ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ২০ এপ্রিল ২০২৪
সংবাদ শিরোনাম ::
কাঙ্ক্ষিত মানের জনশক্তি ছাড়া বিপ্লব সাধিত হয় না- মোহাম্মদ আবদুল জব্বার বন্দরের ভয়ঙ্কর ডাকাত সর্দার মামুন গ্রেফতার বাউফলে প্রাণিসম্পদ সপ্তাহ উদ্বোধন করেন আ স ম ফিরোজ বাউফলে মাদক ব্যবসায়ী নাঈম কে ৯৯ পিস ইয়াবা সহ আটক করেছেন থানা পুলিশ  কাজিম উদ্দিন প্রধানের আকস্মিক মৃত্যুতে ফারুক হোসেনের গভীর শোক প্রকাশ বন্দর উপজেলা নির্বাচনে পিতা-পুত্রসহ ৫ চেয়ারম্যান প্রার্থীর মনোনয়ন পত্র জমা ফিলিস্তিনিদের পাশে বিশ্বের সকল মুসলিমদের এগিয়ে আসতে হবে- ডাঃ সৈয়দ আব্দুল্লাহ মোঃ তাহের বাউফল কাশিপুরের অদম্য ১০ ব্যাচের বন্ধুমহলের ইফতার ও দোয়া অনুষ্ঠিত দুমকিতে ১ হাজার অসহায় পরিবারের মাঝে ঈদ সামগ্রী বিতরন অয়ন ওসমানের নেতৃত্বে নারায়ণগঞ্জ মহানগর ছাত্রলীগের ইফতার বিতরন

প্রাণনাশের ভয়ে মাঠ ছাড়লেন আড়াইহাজারের তৃণমূল বিএনপি’র প্রার্থী

নিজস্ব প্রতিনিধিঃ
  • আপডেট সময় : ০৮:১৯:২৭ অপরাহ্ন, শনিবার, ৬ জানুয়ারী ২০২৪ ৭৪ বার পড়া হয়েছে

প্রাণনাশের ভয়ে মাঠ ছাড়লেন আড়াইহাজারের তৃণমূল বিএনপি'র প্রার্থী

প্রাণনাশের ভয়ে মাঠ ছাড়লেন আড়াইহাজারের তৃণমূল বিএনপি’র প্রার্থী কে এম আবু হানিফ হৃদয়।

৬ জানুয়ারি (শনিবার) বিকেলে নারায়ণগঞ্জ প্রেসক্লাবে সংবাদ সম্মেলন করে নির্বাচন থেকে সরে দাঁড়ানোর ঘোষণার দিলেন নারায়ণগঞ্জ ২ (আড়াইহাজার) আসনের তৃণমূল বিএনপির প্রার্থী কে এম আবু হানিফ হৃদয়।

দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের ভোট শুরুর ১৫ ঘণ্টা আগে নির্বাচন থেকে সরে দাঁড়ানোর কারণ হিসেবে তিনি বলেন, আড়াইহাজারের আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী ও বর্তমান সংসদ সদস্য নজরুল ইসলাম বাবু আমাকে এবং আমার এজেন্টদের বাড়িতে বাড়িতে গিয়ে ভয়ভীতি দেখাচ্ছে।

এতে ভয়ে কেউ আমার পুলি়ং এজেন্ট হতে রাজি হচ্ছে না। তাই আমি এমপি বাবুর বলয়ের কাছে আত্মসমর্পণ করে নির্বাচন থেকে সরে দাঁড়িয়েছি।

সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, এ বিষয়ে প্রধান নির্বাচন কমিশনারের কাছে লিখিত অভিযোগ দিয়েছি।

নির্বাচন কমিশনারের কাছে দেওয়া তার অভিযোগের কপি হুবহু নিচে তুলে ধরা হলোঃ

আমি কে.এম আবু হানিফ হৃদয়। দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের প্রচার-প্রচারণার শুরু থেকে আমার প্রতিদ্বন্ধী নৌকার প্রার্থী নজরুল ইসলাম বাবু এমপি আমাকে চরিত্রহরণ, গালি-গালাজসহ বিভিন্ন সময়ে বিভিন্ন মিটিংয়ে হত্যার হুমকি স্বরূপ কথা বলে প্রচারণা থেকে ভয়ভীতি-হুমকি দেখিয়ে দূরে রেখেছেন। এ বিষয়ে কমিশনে অভিযোগ করেও প্রচারণার ক্ষেত্রে নিরাপত্তা বিষয় নিয়ে কোনো পরামর্শ বা সহযোগিতা পাইনি। আগামীকাল রোববার নির্বাচন, আজ শনিবার সারাদিন আমার নির্বাচনী এলাকায় সরকার দলীয় প্রার্থীর লোকজন প্রতিটি গ্রামে আমার এজেন্ট না থাকার জন্য ভয়ভীতি, আতংক সৃষ্টি করে সুষ্ঠু নির্বাচনের পরিবেশ করে সিল মারার পরিকল্পনা করছে। তাদের এই কৌশলগত ভয় ছড়ানোর কারণে কেউ এজেন্ট হয়ে জীবনের ঝুঁকি নিতে রাজি নয়। আর তার সাঁজানো ডামি প্রার্থীরাও তাকে সহযোগিতা করছে। তাই আজ শনিবার ৬ জানুয়ারি দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের সোনালী আঁশ প্রতীকের প্রার্থী হিসেবে নারায়ণগঞ্জ-২ (আড়াইহাজার) ২০৫নং আসন থেকে বর্জন করলাম।

দেশ ও জাতির কল্যাণে কাজ করার জন্য একটি সুষ্ঠু নির্বাচনের প্রতিশ্রুতি পেয়ে অংশগ্রহণ করেছিলাম। একটি নির্দলীয় সরকার ছাড়া এদেশে নির্বাচন সুষ্ঠু ও গ্রহণ যোগ্য নির্বাচন ও হুমকি ভয়ভীতি বন্ধ হওয়ার হবে না। ভোটাররা ভোটের আগেই জানেন নজরুল ইসলাম বাবু এমপি থাকা কালীন তার অধীনে ভোট হচ্ছে। তাই পরাজয় হওয়ার কোনো সম্ভাবনা নাই। তিনিই এমপি থাকছেন এবং থাকবেন। এই প্রথা দুর না করলে নির্বাচন করা সম্ভব হবে না। সংসদ ভেঙ্গে নির্দলীয় লোকদের দিয়ে নির্বাচন করা এদেশের গণতন্ত্রের জন্য অতীব জরুরী। আর ঢাকা-৫ আসনে যেহেতু চলমান এমপি প্রার্থী নির্বাচনে নাই তাই এই ্আসনে প্রার্থী হিসেবে সরকার দলীয় লোকদের আচরণ, প্রশাসনের ভুমিকা, বুথের দৃশ্যপট ও ভোট প্রয়োগ পর্যালোচনা করে নির্বাচনে থাকা না থাকা সিদ্ধান্ত গ্রহণ করবো।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

প্রাণনাশের ভয়ে মাঠ ছাড়লেন আড়াইহাজারের তৃণমূল বিএনপি’র প্রার্থী

আপডেট সময় : ০৮:১৯:২৭ অপরাহ্ন, শনিবার, ৬ জানুয়ারী ২০২৪

প্রাণনাশের ভয়ে মাঠ ছাড়লেন আড়াইহাজারের তৃণমূল বিএনপি’র প্রার্থী কে এম আবু হানিফ হৃদয়।

৬ জানুয়ারি (শনিবার) বিকেলে নারায়ণগঞ্জ প্রেসক্লাবে সংবাদ সম্মেলন করে নির্বাচন থেকে সরে দাঁড়ানোর ঘোষণার দিলেন নারায়ণগঞ্জ ২ (আড়াইহাজার) আসনের তৃণমূল বিএনপির প্রার্থী কে এম আবু হানিফ হৃদয়।

দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের ভোট শুরুর ১৫ ঘণ্টা আগে নির্বাচন থেকে সরে দাঁড়ানোর কারণ হিসেবে তিনি বলেন, আড়াইহাজারের আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী ও বর্তমান সংসদ সদস্য নজরুল ইসলাম বাবু আমাকে এবং আমার এজেন্টদের বাড়িতে বাড়িতে গিয়ে ভয়ভীতি দেখাচ্ছে।

এতে ভয়ে কেউ আমার পুলি়ং এজেন্ট হতে রাজি হচ্ছে না। তাই আমি এমপি বাবুর বলয়ের কাছে আত্মসমর্পণ করে নির্বাচন থেকে সরে দাঁড়িয়েছি।

সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, এ বিষয়ে প্রধান নির্বাচন কমিশনারের কাছে লিখিত অভিযোগ দিয়েছি।

নির্বাচন কমিশনারের কাছে দেওয়া তার অভিযোগের কপি হুবহু নিচে তুলে ধরা হলোঃ

আমি কে.এম আবু হানিফ হৃদয়। দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের প্রচার-প্রচারণার শুরু থেকে আমার প্রতিদ্বন্ধী নৌকার প্রার্থী নজরুল ইসলাম বাবু এমপি আমাকে চরিত্রহরণ, গালি-গালাজসহ বিভিন্ন সময়ে বিভিন্ন মিটিংয়ে হত্যার হুমকি স্বরূপ কথা বলে প্রচারণা থেকে ভয়ভীতি-হুমকি দেখিয়ে দূরে রেখেছেন। এ বিষয়ে কমিশনে অভিযোগ করেও প্রচারণার ক্ষেত্রে নিরাপত্তা বিষয় নিয়ে কোনো পরামর্শ বা সহযোগিতা পাইনি। আগামীকাল রোববার নির্বাচন, আজ শনিবার সারাদিন আমার নির্বাচনী এলাকায় সরকার দলীয় প্রার্থীর লোকজন প্রতিটি গ্রামে আমার এজেন্ট না থাকার জন্য ভয়ভীতি, আতংক সৃষ্টি করে সুষ্ঠু নির্বাচনের পরিবেশ করে সিল মারার পরিকল্পনা করছে। তাদের এই কৌশলগত ভয় ছড়ানোর কারণে কেউ এজেন্ট হয়ে জীবনের ঝুঁকি নিতে রাজি নয়। আর তার সাঁজানো ডামি প্রার্থীরাও তাকে সহযোগিতা করছে। তাই আজ শনিবার ৬ জানুয়ারি দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের সোনালী আঁশ প্রতীকের প্রার্থী হিসেবে নারায়ণগঞ্জ-২ (আড়াইহাজার) ২০৫নং আসন থেকে বর্জন করলাম।

দেশ ও জাতির কল্যাণে কাজ করার জন্য একটি সুষ্ঠু নির্বাচনের প্রতিশ্রুতি পেয়ে অংশগ্রহণ করেছিলাম। একটি নির্দলীয় সরকার ছাড়া এদেশে নির্বাচন সুষ্ঠু ও গ্রহণ যোগ্য নির্বাচন ও হুমকি ভয়ভীতি বন্ধ হওয়ার হবে না। ভোটাররা ভোটের আগেই জানেন নজরুল ইসলাম বাবু এমপি থাকা কালীন তার অধীনে ভোট হচ্ছে। তাই পরাজয় হওয়ার কোনো সম্ভাবনা নাই। তিনিই এমপি থাকছেন এবং থাকবেন। এই প্রথা দুর না করলে নির্বাচন করা সম্ভব হবে না। সংসদ ভেঙ্গে নির্দলীয় লোকদের দিয়ে নির্বাচন করা এদেশের গণতন্ত্রের জন্য অতীব জরুরী। আর ঢাকা-৫ আসনে যেহেতু চলমান এমপি প্রার্থী নির্বাচনে নাই তাই এই ্আসনে প্রার্থী হিসেবে সরকার দলীয় লোকদের আচরণ, প্রশাসনের ভুমিকা, বুথের দৃশ্যপট ও ভোট প্রয়োগ পর্যালোচনা করে নির্বাচনে থাকা না থাকা সিদ্ধান্ত গ্রহণ করবো।